DSC_5334 copy.jpg1সাহেব, দিনাজপুর ॥ জাতীয় সংসদের সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি নতুন প্রজন্মকে স্বর্নিভর, আত্মনির্ভরশীল করে জাতীয় সম্পদে পরিনত হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেছেন জাতীর জন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ার কারিগর হবে নতুন প্রজন্ম। এই স্বপ্নকে লালন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য বিষয়ক উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে নারী ও পুরুষদের আইটি ও আইসিটির আওতায় আনার কর্মসুচী শুরু করেছে। আর এই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হলে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়িত হবে।

DSC_5328 copy২৪ জুলাই শুক্রবার সদর উপজেলা মিলনায়তনে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি দিনাজপুরে ডাক, টেলিযোগযোগ ও তথ্য প্রযক্তি মন্ত্রণালয় আয়োজিত লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় ইউনিয়ন পর্যায়ের মহিলাদের জন্য আইটি / আইসিটি বিষয়ক ১৫ দিনব্যাপী ৩নং ফাজিলপুর এবং ৪নং শেখ পুরা ইউনিয়নে ৪০ জন মহিলাদের প্রশিক্ষন ও ৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যায়ে দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হলরুম নির্মানকাজের উদ্বোধন এবং একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্পের শ্রেষ্ট সমিতি সভাপতি ও উপকার ভোগীদের পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে উপরোক্ত কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, প্রধানমন্ত্রী উন্নয়নকে জনগনের দৌড়গোড়ায় পৌছে দিতে উপজেলা গুলোতে নতুন ভাবে সাজিয়ে তুলছে। জনগনের দুর্ভোগ ও হয়রানী হ্রাস করতে এই পদক্ষেপ। একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প গ্রামাঞ্চলের অসহায় দরিদ্র মানুষের পথ প্রদর্শক হিসেবে কাজ করবে। দিনাজপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে পৃথক পৃথক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদুল ইসলাম,সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদ সরকার, সাধারন সম্পাদক বিশ্বজিৎ ঘোষ কাঞ্চন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায় প্রমুখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের কো-অর্ডিনেটর মোক্তাদিউর রহমান দিপু।

DSC_5249 copyদিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হলরুম নির্মান কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এলজিইডির তত্তাবধায়ক প্রকৌশলীর মোঃ রেজাউল করিম, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ খলিলুর রহমান, সদর উপজেলা প্রকৌশলী মুহাঃ ফারুক হাসান, ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোবারক আলী শাহ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান শেষে কর্নাই গ্রাম উন্নয়ন সমিতির সভাপতি শ্রী নরেশ চন্দ্র রায়, কাশিমপুর গ্রাম উন্নয়ন সমিতির সভাপতি সাবেরা আক্তার, বনতাড়া গ্রাম উন্নয়ন সমিতির ম্যানজার সুকুমার রায়/দেবাশীষ কুমার রায়, পুর্ব মুরাদপুর গ্রাম উন্নয়ন সমিতির ম্যানেজার মোছাঃ রুপছানা বেগম, গৌরীপুর গ্রাম উন্নয়ন সমিতির উপকার ভোগী ছালেউর রহমান ও পাতলশা গ্রাম উন্নয়ন সমিতির উপকারভোগী মোছাঃ আমিনা খাতুনকে শ্রেষ্ট পুরস্কার দেয়া হয়।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য