কারিগরী শিক্ষার প্রসারে শিক্ষকদের ভূমিকা রাখতে হবেকারিগরী শিক্ষার প্রসারে শিক্ষকদেরকে ভূমিকা রাখতে হবে। কারিগরী শিক্ষা গ্রহণ করতে পারলে কর্মক্ষেত্রেরও প্রসার ঘটবে। কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। এছাড়া বর্তমান সরকারের ভিশন ২০২১ সরকারী কর্মকর্তা ও জন প্রতিনিধিগনদের মাধ্যমে বাস্তবায়ন করতে হবে।

এ মন মানসিকতা নিয়ে আমাদের মিলেমিশে কাজ করতে হবে। সরকারী কর্মকর্তাগন জন প্রতিনিধিদের সর্বাত্মক সহযোগিতা পেলেই সরকারের ভিশন ২০২১ বাস্তবায়ন সম্ভব।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত পরিচিতি ও মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি দিনাজপুরের নবাগত জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম তাঁর বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

বিরল উপজেলার সকল বিভাগীয় কর্মকর্তা, জন প্রতিনিধি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান, সাংবাদিক ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গের সাথে পরিচিতি ও মত বিনিময় সভা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ আল খায়রুমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সৈয়দ মাহমুদ হাসান, বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই সরকার, আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতী আব্দুল লতিফ, সাধারন সম্পাদক এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এ কে এম আফজালুল আনাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা বেগম সোনা, কৃষি অফিসার আশরাফুল আলম, ৫নং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সবুজার সিদ্দিক সাগর, পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মঞ্জুরুল হাসান, পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তহিদুল ইসলাম, বিরল প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাবেক সাধারন সম্পাদক আতিউর রহমান, যুগ্ন-আহ্বায়ক নুরে আলম সিদ্দিকী, ফটো সাংবাদিক আরিফুল ইসলামসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।

মত বিনিময় সভা শেষে নবাগত জেলা প্রশাসক মীর খায়রুল আলম ৫নং বিরল ইউনিয়ন ভূমি অফিস, ৫ নং বিরল ইউনিয়ন পরিষদ, বিরল থানা, কিশোরীগঞ্জ বিওপি ও বিরল স্থলবন্দরের নির্ধারিত স্থান পরিদর্শন করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য