robiulরাণীশংকৈল প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাওয়ের রাণীশংকৈল থানা পুলিশের এস.আই রেজুয়ান ও তার সঙ্গীরা অপহরণ মামলার ভিক্টিম রবিউলের (২০) গলায় ব্লেড মারায় গুরুত্বর আহত হয়ে সে রাণীশংকৈল হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে। এ ঘটনায় ৭ জুন ভিক্টিমের পিতা আঃ ওহাব জেলা পুলিশ সুপারের নিকট লিখিত অভিযোগ করেন।

জানা যায়, উপজেলার দক্ষিণ সন্ধারই গ্রামের আঃ ওহাবের ছেলে রবিউলকে গত ৩১/১০/১৪ ইং রাত্রীতে নিজ শয়ন কক্ষ হইতে একই এলাকার বেলাল (৫০) হেলাল (৩৫), সিরুমিয়া (৭০) অপহরণ করে রংপুরে নিয়ে যায়। মর্মে রাণীশংকৈল থানায় ৩৬৪/৩৪ ধারামতে একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়। মামলা নং ১৩ তারিখ ২৯/০১/১৫ ইং।

ঘটনার সূত্র ধরে রাণীশংকৈল থানার এসআই রেজুয়ান সহ তার সঙ্গী নজরুলের পুত্র আনোয়ারুল, হাসিমের পুত্র মোস্তফা আলম, হেদুর পুত্র কাদের মৌহুরী এবং আঃ খালেক অপহরণ মামলার আসামীদের যোগ সাজেসে ৪ জুলাই রবিউলকে উদ্ধার করার জন্য রংপুরের উদ্দ্যেশ্যে রওয়ানা হয়।

ভিক্টিম রবিউলকে উদ্ধার করার পর অসৎ উদ্দ্যেশ্যে তার গলায় ব্লেডের আঘাত করে গুরুত্বর যখম করে। পুলিশের হেনকাপ লাগানো অবস্থায় সে রাণীশংকৈল হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে। পুলিশের এস,আই ও তার সঙ্গীরা হত্যার উদ্দেশ্য রবিউলের গলায় ব্লেডের আঘাত করেছে বলে তার পিতা আঃ ওহাব জেলা পুলিশ সুপার বরাবরে লিখিত অভিযোগে করেণ। এ ব্যাপারে এস আই রেজুয়ান বলেন ভিক্টিম নিজেই নিজের গলায় ব্লেড মেরেছে। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য