SAM_2912 copyকাশী কুমার দাস ॥ দশ মাইল-সৈয়দপুর মহাসড়কে সড়ক ও জনপথ বিভাগ কর্তৃক ভূষিরবন্দর সংলগ্ন বেলাল নদীর উপর নির্মানাধীন ৪ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৫৪ মিটার লম্বা ও ১০.২৫ মিটার চওড়া নির্মানাধীন ব্রীজটির কাজ অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ১১ নং তেঁতুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুনীল কুমার সাহা নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।
উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী ফিরোজ হোসেন আহম্মেদ ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ ফয়েজুদ্দিন ঘটনাস্থলে উপস্থিত  হলে ইউপি চেয়ারম্যান সুনীল কুমার সাহা সাংবাদিকসহ তাদেরকে জানান, ব্রীজের দু পাশের দু মাথায় পুরাতন এ্যাপেন্টমেন্ট ওয়াল এর উপর ঠিকাদার নতুন করে ওয়াল নির্মাণ করা হয়েছে। যার ফলে ভবিষ্যতে আবারো ফাটল ধরতে পারে এবং ব্রীজের দুপাশে সংযোগ রাস্তাটি ব্রীজ থেকে বের হওয়া পুরাতন ইট দিয়ে খোয়া তৈরী করে রাস্তা নির্মাণের প্রক্রীয়া করাতে আমরা ঠিকাদারকে কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছি। সড়ক ও জনপথ বিভাগের প্রকৌশলীরা বলেন, ঢাকা হতে দেয়া ব্রীজ নির্মাণের যে নকশা আমরা হাতে পেয়েছি সেইভাবে আমরা ঠিকাদারকে কাজ করতে বলেছি। আমাদের করার কিছুই নেই। তবে ব্রীজের সংযোগ রাস্তায় পুরাতন ইট ব্যবহার করা হলে তা অন্যায় হবে। ঠিকাদার যাতে পুরাতন ইটের খোয়া সংযোগ রাস্তায় ব্যবহার করতে না পারে সে ব্যাপারে আমরা প্রশাসনিক ব্যবস্থা করব। এই আশ্বাসের প্রেক্ষিতে ইউপি চেয়ারম্যান সুনীল কুমার সাহা ঠিকাদারকে কাজ করার অনুমতি দেন। উল্লেখ্য, সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্মিত পুরাতন বেলাল নদীর উপর বৃষ্টিতে ফাটল ধরলে কর্তৃপক্ষ উক্ত ব্রিজটি ভেঙ্গে নতুন করে নির্মাণের জন্য টেন্ডার আহ্বান করলে বগুড়ার ঠিকাদার জেইজেড এইচ জেভি কন্সাট্রেকশন কাজটি পায় গত ২১-০৪-২০১৪ইং থেকে কাজটি শুরু হয়।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য