Mango-4সৈয়দপুর প্রতিনিধিঃ মৌসুমী ফল আম। নামের ভিন্নতার সাথে কিছুটা স্বাদেরও ভিন্নতা রয়েছে। এই আমের বাজার গড়ে উঠেছে নীলফামারীর বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুরের রেললাইন ঘেষে ঘুমটি এলাকায়। প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত  তিন ঘন্টার আম বাজারে কেনাবেচার ধুম পড়ে। বিভিন্ন জেলার আম ব্যবসায়ীরা এখানে বিভিন্ন জাতের আম নিয়ে এসে আম বাজার সৃষ্টি করে।
আম ব্যবসায়ীরা বেশির ভাগ আম সংগ্রহ করেন রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিভিন্ন এলাকা থেকে এবং তা নিয়ে নিয়ে আসেন এই বাজারে ট্রেনে বা ট্রাকে করে। সৈয়দপুরের পার্শ্ববর্তী বদরগঞ্জের পদাগঞ্জ থেকে মিষ্টি সুস্বাদু হাঁড়িভাঙ্গা আমও আসছে এই বাজারে। সৈয়দপুর ও আশেপাশের বাগান মালিকরাও আম নিয়ে আসছেন পাইকারী বাজারে। সবমিলে এখানকার কয়েক ঘন্টার আম বাজার জমে উঠেছে।
এই বাজারে যেসব আম পাওয়া যায় তার মধ্যে খিরসা পাতি, গোপাল ভোগ, লক্ষণা, মোহনভোগ, হিমসাগর, আ¤্রপালি, মিছরি ভোগ, ল্যাংড়া, গুটি আম অন্যতম। টুকরি বা ঝুড়িতে এসব আম পাইকারি বাজারে প্রতিমন ১ হাজার থেকে ২ হাজার ৫শ’ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খুচরা ব্যবসায়ী ও ফেরিওয়ালা আম ব্যবসায়ী আম কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।
পাইকারি বাজারে যে আম কিনছেন খুচরা ব্যবসায়ী বা দোকানীরা, তা কেজিতে ডাবল লাভে বিক্রি করছেন। তারা এসব আম কিনে ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য থরে থরে দোকানে সাজিয়ে রাখেন। ফেরিওয়ালারা ফেরি করে শহরে ও গ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে বিক্রি করে মৌসুমে ভালভাবে সংসার চালাচ্ছেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য