arr4রতন সিং, দিনাজপুর থেকে ॥ দিনাজপুরে বিজিবি’র অভিযানে নেশা জাতীয় সাড়ে ৮ হাজার পিস ট্যাবলেট, ৬৯৫ বোতল ফেন্সিডিল ও ৩ কেজি গাজাসহ ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে। এব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় পৃথক ৪টি মামলা দায়ের করা হয়।
দিনাজপুর বিজিবি সেক্টর সূত্রে প্রকাশ, বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিরামপুর উপজেলার বিজুল নামকস্থানে ঢাকাগামী সালমা ও রাহবার কোচ তল্লাশী করে সাড়ে ৮ হাজার পিস ভারতীয় নেশা জাতীয় ট্যাবলেটসহ ২ জনকে আটক করা হয়। আটক ২ জন গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার নুনাগাড়ী গ্রামের জামরুল ইসলাম (৩৮) ও তার স্ত্রী রাহেলা বেগম (৩২)। এই ২ জন অভিনব কায়দায় শরীরের সাথে ট্যাবলেটগুলো ফিটিং করে ঢাকায় নিয়ে যাচ্ছিল। উদ্ধারকৃত ট্যাবলেটের মধ্যে রয়েছে ভায়াগ্রা, সানাগ্রা, প্রাকটিন, সেডিল, ইজিবাম, কুপির‌্যাক। এছাড়া বিজিবি’র অপর একটি অভিযান টিম গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় ফুলবাড়ী ঢাকা মোড় নামকস্থানে ঢাকাগামী রেখা পরিবহন কোচে লিচুর ঝুড়ি থেকে ৪৫০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। এসময় লিচুর ঝুড়ির মালিক না থাকায় কোচের চালক, সুপারভাইজার ও হেলপারকে আটক করা হলে যাত্রীদের অনুরোধে মুচলেকা গ্রহণে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
অপরদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে হাকিমপুর থানার হিলি সীমান্তে অভিযান চালিয়ে ২৪৫ বোতল ফেন্সিডিল ও ৯ কেজি গাজাসহ ৩ জনকে আটক করা হয়। আটক ৩ জন ঢাকার কেরানীগঞ্জ থানার খাগাইল গ্রামের অজিতমল্লিক (৩৫), পাবনা ঈশ্বরদী থানার গোকুল থানার সিরাজুল ইসলাম (৩২) ও পার্বতীপুর উপজেলার কুলিপাড়া গ্রামের আব্দুল কাদের (৩০)। উদ্ধারকৃত মাদক ও আটক ৩ জনকে হাকিমপুর থানায় সোপর্দ করে বিজিবি’র পক্ষ থেকে পৃথক ৪টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য