Death মৃত্যু Hotta khun হত্যাডিমলা, নীলফামারী সংবাদাতাঃ নীলফামারীর ডিমলায় বুধবার সকালে হাসপাতাল থেকে কামরুজ্জামান মঙ্গলু (২০) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। কামরুজ্জামানের পরিবারের অভিযোগ তাকে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে স্ত্রী শিউলি বেগমের ভগ্নিপতি তহিদুল ইসলাম আত্বগোপন করেছে।
জানা যায় ৩ মাস পূর্বে খালিশা চাপানি ইউনিয়নের ব্যাপারীটোলা মাদরাসা পাড়ার বাহারুল ইসলামের ছেলে কামরুজ্জামান মঙ্গলু (২০) বিয়ে হয় জলঢাকা উপজেলার গোলমুন্ডা গ্রামের আবদুল জব্বারের কন্যা শিউলী বেগমের সাথে। গত সোমবার বিকেলে একই ইউনিয়নের লালকুড়ার পাড়ের শিউলির ভগ্নপতি তহিদুল ইসলামের বাড়ীতে স্বামী স্ত্রী বেড়াতে যায়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কামরুজ্জামান সেখানে কীটনাশক পান করলে শিউলিসহ পরিবারের লোকজন রাতে ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ২টায় কামরুজ্জামান মৃত্যু হয়। কামরুজ্জামানের পিতা বাহারুল ইসলামের অভিযোগ, তার পুত্রকে হত্যার পর মুখে বিষ ঢেলে দেওয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে শিউলির ভগ্নিপতি তহিদুল ইসলাম আত্বগোপন করেছে। হাসপাতাল কতৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ডিমলা থানার এসআই তাজুল ইসলাম জানায়, লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলার মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। লাশের ময়না তদন্তের পর হত্যার সঠিক রহস্য জানাযাবে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য