10__kim_jong_unআন্তর্জাতিক ডেস্ক:  উত্তর কোরিয়া শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ খরার কবলে পড়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ। খরার কারণে দেশটিতে খাদ্য সংকটের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) জানাচ্ছে দেশটির প্রধান প্রধান ধান উৎপাদনকারী চারটি প্রদেশ এই খরায় মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছে।

খরার কারণে দেশটির দক্ষিণ ও উত্তর হোয়াংহে, দক্ষিণ পিয়ংগান এবং দক্ষিণ হামজিয়ং প্রদেশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। প্রদেশের ৩০ শতাংশেরও বেশি ধান খরার কারণে নষ্ট হয়ে গেছে। এর আগে ১৯৯০ সালে দেশটিতে একবার খরা দেখা দিয়েছিল। সে সময় শত শত লোক মারা গিয়েছিল। তবে দেশটিতে এই সময়ে যে খরা দেখা দিয়েছে তা অপ্রত্যাশিত ছিল- জানিয়েছেন বিবিসির সংবাদদাতা। জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য সংস্থা বলছে, উত্তর কোরিয়া প্রতিনিয়তই খাদ্য সংকটের মুখোমুখি হচ্ছে। বর্তমানে দেশটির এক-তৃতীয়াংশ শিশু অপুষ্টিতে ভুগছে। পাশাপাশি বিশ শতাংশ গর্ভবতী নারী ও নবজাতকের মায়েরাও অপুষ্টিতে ভুগছে।

গত ৩০ বছরের ইতিহাসে গতবছর দেশটিতে সবচেয়ে কম বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম।
সিউলের বিবিসি সংবাদদাতা স্টিফেন ইভান্স জানাচ্ছেন, কম বৃষ্টিপাত হবার কারণে খাদ্য সংকটও দেখা দিয়েছে সেই হারে। দক্ষিণ কোরিয়াসহ বিভিন্ন দেশ উত্তর কোরিয়ায় খাদ্য সহায়তা পাঠিয়ে থাকে। উত্তর কোরিয়ার প্রায় বিশ লাখ মানুষ জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য সংস্থার কাছ থেকে খাদ্য সহায়তা নিচ্ছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য