arrসৈয়দপুর, নীলফামারী সংবাদাতাঃ সৈয়দপুরে জনতার হাতে ৫ ডাকাত আটক হয়েছে। পরে তাদেরকে থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়। গত ১৫ জুন রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে উপজেলার কাশিরাম ইউনিয়নে বিরোধী ডাঙ্গা এলাকা থেকে জনতা এদের আটক করে। জানা যায়, ওই এলাকায় প্রায় সড়ক ডাকাতি হত। ওইদিন হাজারীহাট থেকে মোটরসাইকেল যোগে বাড়ি ফিরছিল জিল্লুর রহমান। রাস্তায় ডাকাত দল তার মোটরসাইকেল লক্ষ করে দূর থেকে টর্চলাইট মারতে থাকে। ইতঃপূর্বে যে সমস্ত সড়ক ডাকাতি হয়েছে সেগুলো ছিল প্রথমে টর্চ লাইট দিয়ে দেখা। ওই মনে করে মোটরসাইকেল আরোহী উল্টোপথে বাড়ি যায়। বাড়ি থেকে ১৫/২০ জনের লোকজন দলবদ্ধ হয়ে ওইস্থানে এসে ৫জন ডাকাতকে ঘিরে ফেলে একপর্যায়ে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৫টি ধারালো ছুরি  পাওয়া যায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন ইউপি চেয়ারম্যান এনামুলক হক চৌধুরীসহ আশপাশের শত শত লোক। আটককৃতরা হল পাকাধারা হাজারীহাট এলাকার আতাউর রহমানের ছেলে আবদুল মালেক (২৫), মোকছেদ আলীর ছেলে মোস্তাকিম (১৭), দিনাজপুর জেলার কাহারোল উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের শহিদ আলীর ছেলে জাহিনুর রহমান (১৭), দিনাজপুর কোতোয়ালি মোল্লাপাড়া গ্রামের মোতাহার আলীর ছেলে, লুৎফর রহমান (২০) ও আলিফ (১৭) । রাতেই এদেরকে থানা পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। এ ব্যাপারে সৈয়দপুর থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন জানান, জনতা ডাকাত সন্দেহে এদেরকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেছে। এদের বিরুদ্ধে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। সত্যিকারে ডাকাতির সাথে জড়িত থাকলে এদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য