Rangpur Chamber Pic-15-06-2015আজ রংপুর চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র উদ্যোগে আসন্ন পবিত্র মাহে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মূল্য যৌক্তিক, স্থিতিশীল ও সহনীয় পর্যায়ে রাখার উদ্দেশ্যে রংপুর চেম্বার নেতৃবৃন্দের সাথে রংপুর শহরের সর্বস্তরের নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের সরবরাহকারী, পাইকারী ও খুচরা ব্যবসায়ীগণের এক মত বিনিময় সভা রংপুর চেম্বার বোর্ড রুমে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন রংপুর চেম্বারের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মোজতোবা হোসেন রিপন।
সভায় স্বাগত বক্তব্যে চেম্বারের পরিচালক এবং আভ্যন্তরীন বাণিজ্য ও দ্রব্যমূল্য নির্ধারণ, ভেন্ডর-এনলিষ্টমেন্ট ও ই-টেন্ডারিং বিষয়ক উপ-পরিষদের আহ্বায়ক ও নবাবগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আকবর আলী  পণ্যে ভেজালকারীদের বিরুদ্ধে জনমত সৃষ্টি এবং বিপণিবিতান ও সংশ্লিষ্ট দোকানে ভোগ্যপণ্যের পাইকারি ও খুচরা মূল্যের তালিকা প্রদর্শনের জন্য উপস্থিত ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানান। এছাড়া তিনি রমজান মাসে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপন্যের মূল্য যৌক্তিক, স্থিতিশীল এবং সহনীয় পর্যায়ে রাখার জন্য রংপুরের ব্যবসায়ীদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।
মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন নবাবগঞ্জ বাজারের ভোজ্য তেল ব্যবসায়ী মোঃ আজিজুল ইসলাম মুকুল, ময়দা মিল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ময়েন উদ্দিন, মাহিগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মোঃ আজিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ হোটেল রেস্তোঁরা মালিক সমিতি, রংপুর জেলা শাখার সভাপতি মোঃ আব্দুল মজিদ খোকন, স্টেশন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আজিত মাহমুদ এবং রংপুর চেম্বারের পরিচালক মোঃ ফজলুল হক ও মোঃ মোজাম্মেল হক ডাম্বেল।
বক্তারা বলেন, আসন্ন মাহে রমজানে দেশে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের সরবরাহ ও মজুদ পরিস্থিতি সন্তোষজনক রয়েছে এর ফলে মূল্যবৃদ্ধির সমূহ সম্ভাবনা নেই।। তবে রমজানে পণ্য আমদানি এবং সরবরাহ প্রক্রিয়ায় বাধা-বিপত্তি লাঘবে সরকারের সহযোগিতা চান তারা। তাই পণ্য পরিবহনে অহেতুক পুলিশি হয়রানি ও চাঁদাবাজিসহ সব ধরনের বাধা অপসারণের পদক্ষেপ নেয়া হলে রমজানে দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিজনিত কারণে জনদুর্ভোগ অনেকাংশে হ্রাস পাবে বলে তারা মনে করেন। তবে বাজারে যাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সরবরাহ নিরবিচ্ছন্ন থাকে সেক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানসহ সরকারি পর্যায়ে মনিটরিং করার জন্য সভার সভাপতি মহোদয়ের সদয় হস্তক্ষেপ কামনা করেন। পাশাপাশি পবিত্র মাহে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য সমূহের মূল্য তালিকা সংশ্লিষ্ট পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতাকারীগণ তাদের বিক্রয় কেন্দ্রে প্রদর্শনের সম্মতি প্রদান করেন।
সভাপতির বক্তব্যে চেম্বারের সিনিয়র  ভাইস প্রেসিডেন্ট মোজতোবা হোসেন রিপন বলেন, পবিত্র রমজান মাসে যাতে বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ সহনীয় ও যৌক্তিক মূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ক্রয় করে স্বস্তিতে থাকতে পারেন সে লক্ষ্যেই এ মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, মাহে রমজানে যাতে হঠাৎ করে পণ্যের দাম না বাড়ে সেদিকে নজারদারি রাখার লক্ষ্যে রংপুর চেম্বারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে ৬ সদস্য বিশিষ্ট বাজার মনিটরিং কমিটি গঠন করা হবে। এই বাজার মনিটরিং কমিটি মাহে রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে সার্বক্ষণিকভাবে রংপুর চেম্বারকে সহযোগিতা করবে। পবিত্র রমজান মাসে ব্যবসায়ীরা যাতে ফুটপাত দখল করে জনদুর্ভোগের সৃষ্টি না করে এবং মার্কেটের সামনের রাস্তাগুলো যাতে দখলমুক্ত রাখা যায় সে ব্যাপারে তিনি রংপুরের ব্যবসায়ীদের উদ্যোগী ও সতর্ক থাকার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, পবিত্র মাহে রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের মূল্য স্থিতিশীল, যৌক্তিক ও সহনীয় পর্যায়ে রাখতে ব্যবসায়ী মহল তথা সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা একান্ত অপরিহার্য। তাই তিনি রংপুরের সর্বস্তরের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের এ ব্যাপারে সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।  এছাড়া ধুলো-বালি, মাছি, যানবাহনের বিষাক্ত ধোঁয়া ইত্যাদির হাত থেকে ইফতার সামগ্রী রক্ষার্থে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়াসহ ভেজাল ও রং মুক্ত রাখার পাশাপাশি খাবার অযোগ্য দ্রব্য সামগ্রী বিক্রয় না করার পরামর্শ প্রদান করেন। পরিশেষে তিনি সভায় উপস্থিত রংপুরের সর্বস্তরের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দকে উক্ত মত বিনিময় সভায় উপস্থিত হয়ে মূল্যবান মতামত প্রদানের জন্য তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।
এ মত বিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চেম্বারের পরিচালক মোস্তফা আহমেদ ও মোঃ মগরব আলীসহ রংপুর শহরের সর্বস্তরের ভোগ্যপণ্যের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য