Thakurgaon Student Pic-1ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ভাউলার হাট পদমপুর এলাকার কামরুজ্জামান রাসেল (১৫) নামের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীকে বেদম বেত্রাঘাত করেছে এক প্রধান শিক্ষক। এতে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। রবিবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা ভাউলার হাট উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় রাসেলকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসাপতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রাসেলের এক সহপাঠী জানায়, বন্ধুদের সঙ্গে ক্লাসের ফাঁকে একটু দুষ্টুমি করায় প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেন রাসেলকে ডেকে বেদম বেত্রাঘাত করে। এক পর্যায়ে রাসেল জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে রাসেলের সহপাঠীদের কাছে খবর পেয়ে তার পরিবারের সদস্যরা তাকে স্কুল থেকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

রাসেলের বাবা রায়পুর ইউনিয়ের ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম বলেন, শিক্ষকের বেত্রাঘাতে তার ছেলে অসুস্থ হওয়ার পরও স্কুলের পক্ষ থেকে তাদের কিছু জানানো হয়নি। তিনি ওই শিক্ষকের বিচার দাবি করেন। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেনের বিরুদ্ধে সোমবার দুপুরে আদালতে মামলা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক বেলায়েত হোসেন বলেন, রাসেল বেয়াদবি করায় তাকে বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোশারফ হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীকে বেধড়ক বেত্রাঘাতের ঘটনা খুবই দুঃখজনক। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ১৩ জানুয়ারি শিক্ষার্থীদের বেত্রাঘাত নিষিদ্ধ করেন হাটকোর্ট। পরে শিক্ষা মন্ত্রাণালয়ও পরিপত্র জারি করে শারীরিক ও মানসিক শাস্তি নিষিদ্ধ করে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য