pic from dinajpur 07-06-158শাহরিয়ার হিরু, দিনাজপুর : দিনাজপুর রানীগঞ্জে সরকারী ১১টি আকাশমনি গাছ কর্তৃনকে কেন্দ্র করে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, মারপিট, অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। সশস্ত্র মারপিটে উভয় পক্ষের ৪ জন আহত হয়েছে। গাছ কর্তৃনকে কেন্দ্র করে পাল্টা পাল্টি অভিযোগ রয়েছে। ছাত্রলীগের অভিযোগ শিবির নেতা ধ্রুবকে গ্রেফতার করায় শিবির ক্যাডাররা অগ্নিসংযোগ ও দোকান ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটিয়েছে।
প্রত্যক্ষ্যদর্শী ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, গত বুধবার দুর্বৃত্তরা দিনাজপুর সদর উপজেলাধীন ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের রানীগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তায় ধারে বন বিভাগের ১১টি আকাশমনি গাছ কেটে পার্শ্ববর্তী একটি পুকুরে ফেলে রাখে। গাছ কর্তৃনের খবর বন বিভাগ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদকে  কে বা কারা অবগত করার পর থেকে ঐ এলাকায় বিভক্ত দুটি গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা শুরু হয়।
pic from dinajpur 07-06-15৭ জুন রোববার একদল দুর্বৃত্ত ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কার্যালয়ে অগ্নিসংযোগ এবং দুটি দোকান ভাঙ্গচুর করে। খবর পেয়ে দিনাজপুর ফায়ার সার্ভিস অগ্নিকান্ড নিয়ন্ত্রনে আনে। ৩ নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের ইউপি সচিব একেএম হাসানুজ্জামান গাছ কর্তৃনের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে কর্তৃনকৃত গাছ ইউনিয়ন অফিসে জমা রাখা হয়েছে। তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক শামীম দাবী করেন কয়েকদিন পুর্বে দিনাজপুর মহানগর উত্তর ছাত্রশিবিরের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ধ্রুবকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। এরই জের ধরে জামায়াত-শিবির ছাত্রলীগের রানা, তাজেল ও রাব্বীকে মারপিট ও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ অফিসে অগ্নি সংযোগ করে।  জামায়াত শিবিরের নৈরাজ্য ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ৩ নং ফাজিলপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মানিক একটি মামলা দায়ের করে। ওই মামলা প্রত্যাহার না করার কারনে মানিক ও তার ভাই রতনের দোকান ভাঙ্গচুর করা হয়। এদিকে বিএনপি নেতা সোহেল গাছ কর্তৃনের জন্য ছাত্রলীগকে পাল্টা দায়ী করে বলেন, ক্ষুদ্ধরা আশরাফুলকে বেদম প্রহার করে এবং পরিকল্পিত ভাবে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটায়। ঘটনাস্থলে এস আই বিদ্যুত জানান জামায়াত শিবিরের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারকে কেন্দ্র করেই অগ্নিসংযোগ ও ভাঙ্গচুরের ঘটনা ঘটেছে। কোতয়ালী থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ ওসি তদন্ত হাসনাত অগ্নিসংযোগ, ভাঙ্গচুর ও গাছ কর্তনের সত্যতা স্বীকার করে বলেন তদন্ত চলছে, অপরাধীদের আইনের আওতায় আনা হবে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য