BSF dutiesফুলবাড়ী, কুড়িগ্রাম সংবাদাতাঃ কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার কুরুষা -ফেরুষা গ্রামের জয়নাল আবেদীন(৩০) ও রুনা খাতুনের(২৫) শিশু ছেলে রনি(৬) কে প্রায় দুই মাস আগে বিএসএফ আটক করে ভারতের আসাম প্রদেশের ধুবরী শিশু জেলে প্রেরণ করে। শিশুটিকে ফিরে পেতে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে পাগল প্রায় মা-বাবা অবশেষে প্রশাসন ও মানবাধিকার সংস্থার সহায়তা কামনা করেছেন। জানাগেছে, প্রায় ৫ বছর আগে জীবিকার তাগিদে ৩মাস বয়সী শিশুপুত্র রনিকে নিয়ে জয়নাল আবেদীন ও তার স্ত্রী রুনা খাতুন ভারতের দিল্লি প্রদেশের ঝরঝর জেলার খরগদা গ্রামের দুর্গা ইটভাটায় কাজ করতে যান । সেখানে তাদের আরও দুটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। রনির বয়স ৬ বছর হলে তাকে বাংলাদেশে স্কুলে ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নেন তারা। সে অনুযায়ী গত ৭ এপ্রিল আসাম প্রদেশের ধুবরী জেলার টাকিমারী সীমান্ত এলাকার দালাল মইন উদ্দিনের মাধ্যমে রনিকে বাংলাদেশে তার দাদা-দাদীর কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন রনির বাবা মা। কিন্তু গত ১৪ এপ্রিল সীমান্ত পার হওয়ার সময় টাকিমারী ক্যাম্পের বিএসএফের হাতে আটক হয় রনি। এ সময় দালাল মইনুদ্দিন কৌশলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রনির দাদা হজরত আলী কুড়িগ্রাম ৪৫ বিজিবি’র অধীন চৌদ্দকুড়ি বিজিবি ক্যাম্পে শিশু আটকের ঘটনা জানালে আটক রনিকে ফেরত চেয়ে টাকিমারী বিএসএফ ক্যাম্পে পত্র পাঠায় বিজিবি। সে সময় তিন দফায় পতাকা বৈঠক হলেও শিশু রনিকে ফেরত দেয়নি বিএসএফ। এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম ৪৫ বিজিবি’র অধীন যাত্রাপুর কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার কামরুল আহসানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি জানান,আমরা প্রশাসনের পক্ষ থেকে  শিশু রনিকে ফেরত আনার জন্য সবরকম চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য