BSFবিরল (দিনাজপুর) সংবাদাতা॥ বিরল সীঁমান্তে চোরাকারবারীদের ছোড়া গুলিতে এক গরু ব্যবসায়ী নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার সময় গুলির শব্দ ও ককটেলের বিস্ফরণে সীঁমান্ত এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার রাত ৮ টার দিকে বিরলের ধর্মপুর ইউপি’র এনায়েতপুর সীমান্ত এলাকার নারিকেল তোলা নামক স্থানে। এ ব্যাপারে বিরল থানায় সাধারণ ডায়েরী হয়েছে।
গোপন সূত্রে বিলম্বে প্রাপ্ত সংবাদে জানা গেছে, বিরল উপজেলার সীঁমান্ত এলাকার বেশ কয়েকটি পয়েন্টে দু’ দেশের আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কতিপয় সদস্যকে মেনেজ করে এলাকার চোরা কারবারিরা মাদক ও গরুর ব্যবসা করে আসছিল দীর্ঘদিন থেকে। ঐ রাতে ঘটনার সময় ভারতীয় ৪ জন গরু ব্যবসায়ী মোট ২৮ টি গরু নিয়ে কাটা তারের বেড়ার ব্রীজের নিচ দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে চাইলে সীমান্তে প্রভাব বিস্তার ও অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে একদল চোরাকারবারী গরু ব্যবসায়ীদের লক্ষ্য করে গুলি ও ককটেল ছুড়ে। এ সময় ভারতীয় ৩ জন গরু ব্যবসায়ী পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও একজন গরু ব্যবসায়ী ককটেলের স্পীলিন্টারের আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে জখমী হয়। তাকে তড়িঘড়ি করে চোরাকারবারীরা চিকিৎসার জন্য কালিয়াগঞ্জ বাজারে নিয়ে এসে মোটরসাইকেলযোগে দিমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় ভারতীয় গরু ব্যবসায়ী মারা যায়। অবস্থা বেগতিক দেখে মৃত ব্যক্তির সাথে থাকা চোরাকারবারীরা সীমান্ত এলাকার প্রায় ১০ কি.মি. পশ্চিমে রামচন্দ্রপুর সীমান্ত এবং ভারতীয় খৈলতৈড় সীমান্ত এলাকার মৌলাই বিল নামক স্থানে ভারতের অভ্যন্তরে ঐ ব্যক্তির লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে আসে। অনুসন্ধানে জানা গেছে, মৃত গরু ব্যবসায়ীর নাম  নাজিমুল ইসলাম (৩৫)। তার বাড়ী ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমন্ডি থানার কামদহ গ্রামে। সে ঐ গ্রামের হাপু মোহাম্মদের পুত্র। এ ঘটনায় বিরল থানায় সাধারণ ডায়েরী হয়েছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য