ছুরিকাঘাত হত্যাপঞ্চগড় সংবাদাতাঃ পঞ্চগড়ে পারিবারিক কলহের জের ধরে সৎ মা ও বড় ভাইকে ছুরিকাঘাত করেছে মাসুদ রানা প্রধান (২৬) নামে এক যুবক।
আহতদের পঞ্চগড় সদর থানা পুলিশ উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
গত মঙ্গলবার ভোরে জেলার সদর উপজেলার পঞ্চগড় সদর ইউনিয়নের বলেয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন, ওই এলাকার মৃত নজরুল ইসলাম প্রধানের দ্বিতীয় স্ত্রী সুফিয়া খাতুন (৫১) ও তার ছেলে আবু সায়েদ প্রধান (৩৩)
আহত আবু সায়েদের স্ত্রী সাথিয়া আফরিন জানান, বেশ কিছুদিন ধরে মৃত নজরুল ইসলাম প্রধানের বড় বউয়ের ছেলে মাসুদ রানা বাবার সম্পদ ভাগ-বাটোয়ারা ও আলাদা টিউবওয়েল-লেট্রিন বসানোর জন্য সৎ মা ও ভাইয়ের প্রতি চাপ প্রয়োগ এবং বিভিন্ন লোক মারফত তাদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছিলেন।
এ বিষয়ে আবু সায়েদের মা সুফিয়া খাতুন সৎ ছেলে মাসুদ রানার বিরুদ্ধে সোমবার (১৮ মে) পঞ্চগড় সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। ওই দিন দিবাগত গভীররাতে আবু সয়েদ ও মাসুদ রানার মধ্যে আবারো কথা কাটাকাটি শুরু হয়। একপর্যায়ে মাসুদ একটি ধারালো ছুরি দিয়ে সৎ ভাই আবু সায়েদকে এলোপাথাড়ি আঘাত করতে থাকেন। তার চিৎকার শুনে ঘুমিয়ে থাকা আবু সায়েদের মা সুফিয়া খাতুন উঠে এসে মাসুদকে থামাতে গেলে তাকেও আঘাত করেন মাসুদ।
পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে এ ঘটনায় এখনো মাসুদকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।
পঞ্চগড় সদর থানার ওসি মো. মমিনুল ইসলাম জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে সংঘর্ষের আশঙ্কায় সুফিয়া খাতুন সোমবার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। তবে এ ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য