2+sudi-yemneআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইয়েমেনে চলতি সপ্তাহের শেষ দিকে একটি অস্ত্রবিরতি চুক্তি কার্যকরের যে প্রস্তাব সৌদি আরব দিয়েছে তাতে সম্মত হয়েছে দেশটিতে স্বপক্ষ ত্যাগকারী সৈন্যরা। ইয়েমেনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহ’র প্রতি অনুগত এসব সৈন্যরা দেশের বিস্তীর্ণ এলাকার দখল নিতে শিয়া বিদ্রোহীদের সহায়তা করে আসছে।
বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত সংবাদ সংস্থা সাবাকে পক্ষত্যাগকারী সৈন্যদের মুখপাত্র কর্নেল শারাফ লাকম্যান বলেন, ‘ইয়েমেনে দুর্গত লোকদের কাছে মানবিক সহায়তা পাঠাতে এবং দেশটির বন্দরগুলোতে বাণিজ্যিক জাহাজ প্রবেশের অনুমতি দেয়ার পাশাপাশি নিষ্ঠুর কার্যকলাপ বন্ধে মানবিক কারণে অস্ত্রবিরতির কার্যকর করতে বন্ধুপ্রতিম দেশগুলোর মধ্যস্থতার প্রেক্ষাপটে আমরা মানবিক অস্ত্রবিরতির প্রস্তাবে সম্মতি জানাচ্ছি।’
সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রী আদেল আল জুবেইর মঙ্গলবার থেকে ৫ দিনের অস্ত্রবিরতি শুরুর যে প্রস্তাব দিয়েছেন তা গ্রহণ করা হবে কি হবে না সে ব্যাপারে কোনো বক্তব্য এখনও বিদ্রোহীদের কাছ থেকে আসেনি।
সৌদি আরব ইয়েমেনে বিদ্রোহীদের ওপর গত ছয় সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলা বিমান হামলায় বিরতির প্রস্তাব দেয়ার পর পক্ষত্যাগকারী সেনা ইউনিট অস্ত্রবিরতিতে সম্মতি দেয়ার ঘোষণা দিল। সানায় সালেহ’র বাসভবনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলার কয়েক ঘণ্টা পর রিয়াদ ইয়েমেনে সাময়িক হামলা বন্ধের এ প্রস্তাব দেয়।
সৌদি জোটের বিমান হামলার সময় সালেহ বাসভবনে ছিলেন না বলে ধারণা করা হচ্ছে। তিনি তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে দেশটিতে ক্ষমতায় ছিলেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য