03. nepal+tourist+missingআন্তর্জাতিক ডেস্ক: নেপালের ধংসাত্মক ভূমিকম্পের পর থেকে দেশটিতে থাকা ৩০০ জন অস্ট্রেলীয় নাগরিক নিখোঁজ রয়েছেন এবং হিমালয়ে তুষারধসে তিন মার্কিন নাগরিক নিহত হয়েছেন। সোমবার অস্ট্রেলীয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিজ নাগরিকদের নিখোঁজ হওয়ার কথা ও রোববার যুক্তরাষ্ট্রর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নিজ নাগরিকদের নিহত হওয়ার কথা জানিয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের নিহত নাগরিকদের মধ্যে একজন চলচ্চিত্র নির্মাতা ও একজন চিকিৎসা ত্রাণকর্মী রয়েছেন। ভূমিকম্পের সময় নিহতরা এভারেস্ট পর্বত শিখরের একটি বেইজ ক্যাম্পে অবস্থান করছিলেন। তখনই ভূমিকম্পের ফলে ধসে পড়া তুষারের নিচে চাপা পড়ে নিহত হন তারা।
অস্ট্রেলীয় পররাষ্ট্র ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নেপালে ঘুরতে যাওয়া দেশটির ৫৪৯ জন নাগরিকের মধ্যে ২০০ জনের সঙ্গে যোগাযোগ হওয়ার কথা জানিয়েছে। তবে “বিরুদ্ধ পরিস্থিতির” কারণে অন্যান্যের সঙ্গে যোগাযোগ করা সহজ হচ্ছে না বলে জানিয়েছে ক্যানবেরা টাইমস।
নিখোঁজ অস্ট্রেলীয়দের মধ্যে ২৬ বছর বয়সী স্বেচ্ছাসেবী জেমস ব্রিনসনও রয়েছেন। সিডনির বাসিন্দা ব্রিনসন ওয়াল্ড ভিশনের হয়ে ঢাকায় কাজ করতেন। রেডক্রসের ফ্যামিলি লিঙ্ক ওয়েবসাইট জানিয়েছে, শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২০ এপ্রিল তিনি ভারতের সিকিমে ছিলেন।
ভূমিকম্পের কারণে নেপাল সংলগ্ন সিকিমে ব্যাপক ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া নিখোঁজ অন্যান্যের মধ্যে অ্যাডিলেডের ২০ বছর বয়সী বাসিন্দা জাচারি শেরিডান রয়েছেন। ১১ এপ্রিল এভারেস্ট পর্বতের কাছ থেকে তিনি শেষবার নিজ পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন।
অস্ট্রেলিয়ার চেস্টউডের নারী ইসাবেল বাওডিশ (২৫) এক বন্ধুর সঙ্গে অন্নপূর্ণা পর্বতে ট্রেকিং করতে গিয়েছিলেন, তিনিও নিখোঁজ রয়েছেন। অস্ট্রেলীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশপ সোমবার জানিয়েছেন, অস্ট্রেলীয় সরকার নেপালের জন্য তিন মিলিয়ন ডলারের ত্রাণ সহায়তা পাঠানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। নেপালে নিখোঁজ অস্ট্রেলীয়দের খুঁজে বের করার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন তিনি।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য