7+jolieআন্তর্জাতিক ডেস্ক: সিরিয়ায় শরণার্থী ও অবরুদ্ধ মানুষের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে বিদ্যমান পরিস্থিতির প্রতি তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেত্রী ও সমাজকর্মী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। একই সঙ্গে, জাতিসংঘের ত্রাণ ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান ভ্যালেরি অ্যামোস সিরিয়ায় অস্ত্র-নিষেধাজ্ঞা আরোপের অনুরোধ জানিয়েছে একই প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে। ভ্যালেরি অ্যামোস সিরীয় বিদ্যালয় ও হাসপাতালগুলোর সামরিকীকরণে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি গৃহযুদ্ধে অবিরত নিয়োজিত সিরিয়ার জনগণের অবরুদ্ধ জীবনযাপনের সার্বিক চিত্র তুলে ধরেন। জানান, গোটা সিরিয়ায় প্রায় এ মুহূর্তে প্রায় চার লাখ ৪০ হাজার মানুষ অবরুদ্ধ হয়ে আছে। এদের মধ্যে ১ লাখ ৬৭ হাজার অবরুদ্ধ আছেন আসাদ সরকারের সেনাবাহিনীর আক্রমণে। অবশিষ্ট দুই লাখ ২৮ হাজার মানুষ অবরুদ্ধ হয়ে আছেন আইএস-এর সংক্রমণের কারণে।

জাতিসংঘের সিরীয় দূত বাশার জাফরি জানান আসাদ সরকার আর্ত এলাকাগুলোয় মানবিক সহায়তা পৌঁছুতে বাধা প্রদান করছে। সার্বিক বিবেচনায় অস্ত্র-বিরতি আরোপই একমাত্র সমাধান বলে মনে করেন ভ্যালেরি অ্যামোস।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য