pবিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ বিরামপুরে বিষক্রিয়ায় সংজ্ঞাহীন অজ্ঞাত ব্যক্তি (৪৫) মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে ২০ এপ্রিল (সোমবার) বিকেল ৫ টায় বিরামপুর সরকারী হাসপাতালে মারা গেলেন। বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা: মো: মশিউর রহমান জানান, ১৭ এপ্রিল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে অজ্ঞাত বিষক্রিয়ায় সংজ্ঞাহীন পরিচয়বিহীন এক ব্যক্তিকে ভর্তি করা হয়। এ সময়ের মধ্যে নানাভাবে তার পরিচয় জানার চেষ্ঠা করা হয়েছে এবং রোগীর অবস্থার উন্নতির জন্য চেষ্ঠা করা হয়েছে। কিন্তু এ অবস্থায় রোগীর ৭২ ঘন্টা জীবন সংকটে থাকে। স্বাস্থ্য বিভাগ আন্তরিকতার সাথে চেষ্ঠা করলেও রোগীটিকে বাচাতে পারেননি। তিনি আরও বলেছেন, রোগীর শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না।
dমৃত ব্যক্তিটি সুঠাম দেহী, মাথার চুল ছোট এবং আধা পাকা, গায়ে খয়েরী রংয়ের ফুল শার্ট ও পরনে ছিল খয়েরী ও সাদার চেক লুঙ্গি। হাতের ঔষধ কোম্পানীর ব্যাগ দেখে অনেকেই তাকে হকার বলে ধারনা করছেন।
অন্যতম প্রত্যক্ষদর্শী নিলুফা ইয়াসিমিন জানান, প্রতিদিনের ন্যায় শুক্রবার ( ১৭ এপ্রিল) সকালে বিরামপুর রেল স্টেশন ঝাড়– দেওয়ার সময় ঐ ব্যক্তিকে অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে আশে পাশের লোকজনকে খবর দেন। কয়েকজন মিলে চাঁদা দিয়ে ভ্যান ভাড়া করে তুলে দিলে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় বিরামপুর হাসপাতালে ভর্তি করার। চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩ দিন থাকার পর মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ২০ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬টায় হাসপাতালে হয়ে বলেন, সে সময় অজ্ঞান ব্যক্তিটির কাছে এই হাত ব্যাগটি ছিল।
বিরামপুর থানার এস.আই মোজাফ্ফর রহমান বলেন, পোস্ট মোটমের জন্য হাসপাতাল থেকে লাশ গ্রহন ও মৃত ব্যক্তিটির ব্যাগটি জিম্মায় নিয়ে মৃতের পরিচয় জানার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছেন ।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য