4+Iraqআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাকের কুর্দিস্তান এলাকার রাজধানী ইরবিলে মার্কিন কন্স্যুলেটের কাছে বোমা হামলায় তিনজন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার চালানো হামলাটিতে আরো ১৪ জন আহত হয়েছেন। হামলার দায়িত্ব স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট (আইএস) । আইএস শুক্রবার বাগদাদে ঘটানো দুটি গাড়িবোমা বিস্ফোরণেরও দায়িত্ব স্বীকার করেছে, ওই দুটি হামলায় অন্তত ২৭ জন নিহত হয়েছেন। কন্স্যুলেটের সামনে বোমা বিস্ফোরণে কোনো মার্কিন নাগরিক আঘাত পান নি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অতি সুরক্ষিত কন্স্যুলেটের প্রবেশ পথের ঠিক বাইরে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরিত হয়েছে। বিস্ফোরণের পর ঘটনাস্থল আনকাবা থেকে গুলির শব্দ শুনেছেন ও কালো ধোঁয়ার কুন্ডলি উঠতে দেখেছেন বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রত্যক্ষদর্শী সাংবাদিক। আনকাবা এলাকাটি খ্রিস্টান অধ্যুষিত, এলাকাটিতে অনেক ক্যাফে আছে। এসব ক্যাফেতে প্রবাসী পশ্চিমা নাগরিকদের আনাগোনা বেশি।

মার্কিন কন্সুলেটকে লক্ষ্য করেই হামলাটি চালানো হয়েছে বলে মনে করছেন ইরাবিল সিটি সেন্টারের মেয়র নিহাদ কোজা।
তিনি বলেছেন, “মনে হচ্ছে কন্স্যুলেটই হামলার লক্ষ্য ছিল।” হামলায় তিনজন নিহত ও ১৪ জন আহত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন আনকাবার নিরাপত্তা প্রধান শেরজাদ ফারমান্দ। আইএস গোষ্ঠির বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের “অবনমন ও ধ্বংস” অভিযানে ইরাকের কুর্দি অধ্যুষিত এলাকাটি গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার। এই অঞ্চলের প্রধান শহরে আইএস’র বোমা হামলা তুলনামূলক বিরল ঘটনা। গত বছর ইরাকের বিশাল অংশ দখল করে ইরবিল দখল করারও হুমকি তৈরি করেছিল আইএস।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য