Dinajpur-07-04-15--দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী বলেছেন, গার্ল পাওয়ার প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে ফাজিলপুর ইউনিয়নে বালিকা ও যুবনারীদের নির্যাতন সহিংসতা কমে গেছে। জীবন দক্ষতার মান উন্নয়ন কল্পে প্রশিক্ষনের মাধ্যমে নারীদের স্বনির্ভর হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে। বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে যে সামাজিক আন্দোলন এই ইউনিয়নে শুরু হয়েছিল আজ তার সাফল্য দেখা দিয়েছে বাল্য বিবাহ মুক্তি ইউনিয়ন হিসেবে ঘোষনা দেয়াতে।
“বাল বিবাহ আর নয়-করব মোরা বিশ্ব জয়”- এই শ্লোগানকে সামনে রেখে গতকাল ৭ মার্চ মঙ্গলবার রানীগঞ্জ এহিয়া হোসেন হাই স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ প্রাঙ্গনে এসইউপিকে ও প্ল্যান ইন্টারন্যাশানাল বাংলাদেশ পার্টনাশীপ গার্ল পাওয়ার প্রকল্পের আওতায় মত বিনিময় সভায় ফাজিলপুর ইউনিয়নকে  বাল্য বিবাহ মুক্ত ইউনিয়ন হিসেবে ঘোষনা প্রদান সভায় তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুর রাহমানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ফরিদুল ইসালাম, প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ দিনাজপুর প্রোগ্রাম ইউনিটের ইউনিট ম্যানেজার মোবারক হোসেন।  স্বাগত বক্তব্য রাখেন ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোবারক আলী শাহ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাকেন এসইউপিকের নির্বাহী পরিচালক মোঃ মোজাফ্ফল হোসেন। প্রকল্পের কার্যক্রম উপস্থাপনা করেন এসইউপিকের প্রকল্প সমন্বয়কারী মিরাজ উদ্দিন তালুকদার। বালিকা ও যুব নারীদের পক্ষে অভিজ্ঞতা বিনিময় করে বক্তব্য রাখে সানজিদা আক্তার ও রঞ্জিতা আক্তার রোজি। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন কানিজ ফাতেমা বেগম, ডাঃ মোঃ সহিদুর আলম। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মোঃ মাইনুল ইসলাম। এসময় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাসমিন লুনাসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য