Vrammoman adalotনীলফামারীর ডোমারে ৯ জুয়ারীকে একশত টাকা করে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মঙ্গলবার রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও ডোমার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিউর রহমান এ আদেশ দেন।
ডোমার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মো. মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এস,আই মো. আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মঙ্গলবার রাত ৯ ঘটিকায় উপজেলার তিনবট মোড়ের বাজার থেকে তাস খেলা অবস্থায় তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
আটককৃতরা হলো, উপজেলার মটুকপুর গ্রামের বাচ্চু মিয়ার ছেলে হবিবর রহমান, একই গ্রামের আবদুল লতিফের ছেলে মো. মোতা, দেবেনের ছেলে মধু চন্দ্র শগ, জলঢাকার ধর্মপাল গ্রামের রিজাবুল ইসলামের ছেলে আবু সাঈদ, যতীনের ছেলে সতীষ কুমার, মকলেছারের ছেলে জামসেদ আলী, উত্তর ধর্মপালের লুৎফর রহমানের ছেলে রবিউল ইসলাম. মটুকপুর বসুনিয়া পাড়া গ্রামের নরেশ চন্দ্রের ছেলে সুনীল বাবু, মটুকপুর তিনবট এলাকার আকবর আলীর ছেলে ফজলার রহমান,।
পরে রাতেই তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। আদালতের বিচারক প্রত্যেককে একশত টাকা করে অর্থদন্ডের আদেশ দেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রথম শ্রেণির ম্যাজিষ্ট্রেড মো. শফিউর রহমান গত মার্চ মাসে ১৯টি মামলায় ৩৫ জনে কাছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৭ হাজার ২শ’ টাকা জরিমানা আদায় করেছে।
[ads1]
[ads2]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য