Trainমিলন পারভেজ, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের পার্বতীপুরে অন্তঃসত্তা স্ত্রী মৃত্যুর ১২ ঘন্টার পর স্বামীর আত্মহত্যা। মঙ্গলবার সকালে স্বামী কাঞ্চন মথ¥থপুর রেল স্টেশন রেল গেট সংলগ্ন ট্রেনের নিচে ঝাপ দিয়ে আত্মহত্যা করে। নিহত কাঞ্চন পার্বতীপুর উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের বড়হরিপুর চান্দিনাপাড়া গ্রামের খোকা রায়ের পুত্র। গত রোববার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে পারিবারিক কলহের জের ধরে ৬ মাসের অন্তঃসত্তা স্ত্রী লতা রানী (২৩) ঘরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরে তাকে মুর্মুষ্য অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় মিশনারী ল্যাম্ব হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি দেখা দিলে রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গত সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, গত এক বছর আগে পার্বতীপুর উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের বড়হরিপুর চান্দিনাপাড়া গ্রামের খোকা রায়ের পুত্র বিশ্বনাথ রায় কাঞ্চনের সাথে পঞ্চগড় পৌরসভার এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে মেয়ে লতা রানীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে যৌতুকের জন্য শশুর-শাশুড়ী ও স্বামী নির্যাতন করে আসছে। লতা রানী ৬ মাসের অন্তঃসত্তা ছিল। স্বামী-স্ত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
[ads2]
[ads1]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য