PHOTO-03আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ তিস্তার বুক জুড়ে এখন সবুজের সমারোহ। নানাবিধ ফসলে ভরে উঠেছে তিস্তার ধু-ধু বালু চর। বর্তমানে তিস্তার এই চরাঞ্চলগুলোতে কুমড়া, আলু, লাউ, তিল, তিশি, বাদাম, ভুট্টা, তামাক, গম, মরিচ, পিয়াজ, বেগুন, টমেটো, করলা, বিভিন্ন প্রকার ডালসহ ইরি-বোরো ধান চাষাবাদ হচ্ছে।
বিশেষ করে উপজেলার তারাপুর, বেলকা, হরিপুর, শ্রীপুর, চন্ডিপুর, কাপাশিয়া ইউনিয়ন সংলগ্ন তিস্তার বালুময় চরাঞ্চলগুলোতে এবার মিষ্টি কুমড়ার চাষের প্রবণতা অনেক বেড়েছে। কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে চরাঞ্চলসহ উপজেলায় ৬শ’ ৫০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন রবি ফসলের চাষাবাদ হয়েছে। এর মধ্যে ৫০ হেক্টর জমিতে কুমড়া চাষা হয়েছে। বেলকা নবাবগঞ্জ চরের কৃষক ফুল মিয়া জানান- নিজ উদ্যোগে এ বছর ১ বিঘা জমিতে কুমড়া চাষ করা হয়েছে। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় তিনি এবার কুমড়ার অধিক ফলন আশা করছেন।
উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সত্যেন কুমার জানান, কুমড়া চাষাবাদে অল্প খরচে অধিক লাভবান হওয়া যায়। তবে গত বছরগুলোর তুলনায় এ বছর কুমড়া চাষের পরিমাণ কিছুটা কম হলেও এবছর কুমড়ার ফলন আশানুরূপ হবে বলেই আশা করা হচ্ছে। অনেক এলাকায় এখন কুমড়া উঠতেও শুরু করেছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
[ads2]

[ads1]

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য