Kima puriউপকরণঃ

পুরের জন্য
– আধা কাপ মাংস কিমা(খাসি/গরু/মুরগি)
– ১/৪ কাপ পেঁয়াজ কুচি
– ৩-৪ টি কাঁচা মরিচ কুচি
– আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
– আধা চা চামচ জিরা গুঁড়ো
– আধা চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো – আধা চা চামচ কাবাব মসলা
– ১ চা চামচ আদা-রসুন বাটা
– ২ চা চামচ ধনে পাতা কুচি
– ১ টেবিল চামচ তেল
– লবণ স্বাদমতো

পুরির জন্য
– ২ কাপ ময়দা
– ৩ টেবিল চামচ তেল/ঘি
– আধা চা চামচ লবণ
– কুসুম গরম পানি পরিমাণ মতো – তেল ভাজার জন্য

পদ্ধতিঃ

– একটি প্যানে তেল দিয়ে গরম করে এতে পেয়াঁজ কুচি দিয়ে নরম না হওয়া পর্যন্ত নেড়ে নিন। এরপর এতে দিন আদা-রসুন বাটা, হলুদ গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো, লবন, কাঁচা মরিচ কুচি। কিছুক্ষণ নেড়ে মসলা থেকে তেল আলাদা হলে মাংসের কিমা দিযে নাড়তে থাকুন।

– সামান্য পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। কিমা সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করুন। এরপর ঢাকনা খুলে দিয়ে কিমার অতিরিক্ত পানি শুকিয়ে ফেলুন। এবং ঝরঝরে কিমার পুর তৈরি করে নিন।

– ডো তৈরির জন্য একটি বড় বোলে ময়দা, লবন এবং তেল নিয়ে ভালভাবে মিশিয়ে নিন যেন তেল ময়দাটা খাস্তা হয়ে যায়। এরপর অল্প করে কুসুম গরম পানি দিয়ে ময়দা মাখিয়ে ডো তৈরি হওয়া পর্যন্ত ভালো করে মেখে নিন।

– রুটি বেলার মতো ডো তৈরি হলে ছোট ছোট বল আকারে ভাগ করে নিন। একটি বল নিয়ে গোল বাটির মত বানিয়ে তাতে কিমার পুর দিন এবং বাটির মুখ এমনভাবে বন্ধ করুন যেন কিমার পুর বলের ভেতরে থাকে। এভাবে সব বলগুলো কিমার পুর
দিয়ে তৈরী করে নিন।

– পুরো ভরা একটি বল নিয়ে রুটি বেলার মতো করে ছোটো গোল রুটি বেলে নিন। লক্ষ্য রাখবেন যেনো ভেতরের পুর বেড়িয়ে না পড়ে। প্রতিটি রুটি ১ সেন্টিমিটারের মতো পুরু হলে ভালো হবে। এভাবে সব পুরি তৈরি করে নিন।

– এরপর একটি প্যানে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম করে নিন এবং খুব সাবধানে ১ টি করে পুরি তেলে ছেড়ে ভাজুন। সাবধানে ভাজবেন যেনো পুরি ফুলে উঠে। এরপর পুরি উল্টে নিয়ে অপর পিঠও বাদামী করে ভেজে একটি কিচেন টিস্যুতে নামিয়ে নিন। এতে অতিরিক্ত তেল শুষে যাবে।

রেসিপি সংগ্রহিত লিখেছেন :- Farzana Ahmed

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য