5-Romeআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইতালির রাজধানী রোমে অভিবাসন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও প্রধানমন্ত্রী মাত্তেয় রেনজি’র সরকার বিরুদ্ধে বড় ধরনের সমাবেশ করেছে দেশটির প্রধান বিরোধী দল নর্দান লিগ। বিবিসি জানিয়েছে, শনিবার রোমের পিয়াজ্জা দেল পোপোলো’তে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে লিগের নেতা মাত্তেয় সালভিনি অভিবাসন, ইইউ ও রেনজি সরকারের নীতিগুলোর তীব্র সমালোচনা করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী রেনজি’র সমালোচনা করে সালভিনি বলেছেন, তিনি ইইউ’র স্বার্থকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে ইতালির স্বার্থকে জলাঞ্জলি দিচ্ছেন। ব্যাংক খাত, বড় ব্যবসা, কর ও রোমানীয় ট্রাক চালক, এসব বিষয়ে সরকারের অগ্রগতি নিয়ে উপহাস করেন।
তিনি বলেছেন, “রেনজি কোনো সমস্যা না, রেনজি দাবার একটি বড়ে মাত্র, রেনজি একজন বোবা ক্রীতদাস, নামবিহীন কিছু লোকের নিয়ন্ত্রণে যাঁরা ব্রাসেলসে বসে আমাদের জীবন নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। প্রধানমন্ত্রী রেনজি’কে ব্রাসেলসের “বোকা চাকর” বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। তিনি বলেছেন, “আমি ইতালিকে পরিবর্তন করতে চাই। ইতালির অর্থনীতিকে আবার গতিশীল করতে চাই আমি, যা ব্রাসেলস ও ইউরোপীয় উন্মাদ নীতির কারণে বন্ধ্যা হয়ে আছে। তিনি রেনজি সরকারের অভিবাসন নীতিকে একটি “বিপর্যয়” বলে অভিহিত করেছেন।

ইতালির মতামত জরিপ জানাচ্ছে, সালভিনি খুব দ্রুত জনপ্রিয় হয়ে উঠছেন। জরিপে প্রধানমন্ত্রীর রেনজির পরে সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন সালভিনি। অনেকে তাকে “অপর মাত্তেয়”ও বলতে শুরু করেছেন। এক সময় ইতালির সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বার্লুসকোনির শক্তিশালী মিত্র ছিল নর্দান লিগ। কিন্তু কর ফাঁকির মামলায় বার্লুসকোনি অভিযুক্ত হয়ে পার্লামেন্টের সদস্য পদ হারালে নতুন মিত্রদের দিকে ঝুঁকে পড়ে লিগ। নর্দান লিগের পাশাপাশি কয়েকশ’ গজ দূরে সালভিনি-বিরোধী বড় আর একটি সমাবেশও হয়েছে। বামপন্থি রাজনীতিক দলগুলোর জোট, বর্ণবাদ-বিরোধী আন্দোলনকারী ও সমকামী অধিকারের জন্য আন্দোলনকারী গোষ্ঠিগুলো এ সমাবেশের আয়োজন করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য