Mamlaরতন সিং, দিনাজপুর থেকে ॥ দিনাজপুর জেলার ৮টি উপজেলায় ২০ দলের ডাকা হরতাল-অবরোধের কারণে চলমান রাজনৈতিক সহিংসতায় জানুয়ারীতে বিএনপি-জামায়াত-শিবির-ছাত্রদল ও যুবদলের ১৭৫১ জনের বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে এজাহারে নাম রয়েছে ৩৪৫ জন আর সন্দেহভাজন আসামীর সংখ্যা ১৪০৬ জন। কারাগারে আটক রয়েছেন ১৬৬ জন।
দিনাজপুর পুলিশ কোর্টের একটি সূত্রে জানা যায়, ২০ দলের চলমান হরতাল-অবরোধের সময় জানুয়ারী মাসে দিনাজপুরে রাজনৈতিক সহিংসতায় ৮টি উপজেলায় বিএনপি-জামায়াত-শিবির-ছাত্রদল ও যুবদলের ১৭৫১ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ১৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৪৫ জন এজাহার নামীয় এবং ১৪০৬ জন সন্দেহভাজন আসামী। বুধবার পর্যন্ত গ্রেফতার হয়েছেন ১৬৬ জন। দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৬টি, কাহারোল ও চিরিরবন্দরে ২টি করে ৪টি এবং নবাবগঞ্জ, বিরল, ঘোড়াঘাট, বোচাগঞ্জ ও বীরগঞ্জ উপজেলায় ১টি করে ৫টি মামলা দায়ের করা হয়। ১৫টি মামলার মধ্যে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে ৯টি, সন্ত্রাস বিরোধী আইনে ৩টি, ফৌজদারী দন্ডবিধিতে ২টি এবং বিস্ফোরক উপাদানাবলি আইনে ১টি মামলা রুজু করা হয়। সব ক’টি মামলাই পুলিশী তদন্তে রয়েছে।
জানা গেছে, সদর উপজেলার দায়েরকৃত ৬টি মামলায় মোট আসামী ১১৪৬ জন। এর মধ্যে ১৪৬ জন এজাহারনামীয় ও ১ হাজার জন সন্দেহভাজন আসামী। গ্রেফতার হয়েছে ৭২ জন। চিরিরবন্দর উপজেলায় দায়েরকৃত ২টি মামলায় ১১৭ জন আসামী। এর মধ্যে ৪২ জন এজাহার নামীয় ও ৭৫ জন সন্দেহভাজন। গ্রেফতার হয়েছে ৪৫ জন। কাহারোল উপজেলার ২টি মামলায় ২৬৫ জন আসামীর মধ্যে ৫৫ জন এজাহারনামীয় ও ২১০ জন সন্দেহভাজন। পুলিশ ২০ জনকে গ্রেফতার করেছে।
নবাবগঞ্জ উপজেলায় ১টি মামলায় ৩০ জন আসামীর মধ্যে ৫ জন এজাহারভুক্ত ও ২৫ জন সন্দেহভাজন। গ্রেফতার হয়েছেন ৮ জন। বোচাগঞ্জ উপজেলায় সন্দেহভাজন ১ জনের বিরুদ্ধে ১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে এই আসামী পলাতক। ঘোড়াঘাট উপজেলায় দায়েরকৃত ১টি মামলায় ৫৫ জনের মধ্যে ৩০ জন এজাহার নামীয় ও ২৫ জন সন্দেহভাজন আসামী। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে ১০ জন। বিরল উপজেলায় ৬৯ জনের বিরুদ্ধে ১টি মামলা দায়ের করা হয়। এর মধ্যে ৩৯ জন এজাহারভুক্ত ও ৩০ জন সন্দেহভাজন আসামী। গ্রেফতার হয়েছে ৪ জন। বীরগঞ্জ থানায় ৬৮ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এর মধ্যে ২৮ জন এজাহারনামীয় ও ৪০ জন সন্দেহভাজন আসামী। গ্রেফতার হয়েছেন ৭ জন।
জানুয়ারী মাসে দিনাজপুরের ৮টি উপজেলায় দায়েরকৃত ১৫টি মামলার অধিকাংশ আসামী জামায়াত-শিবিরের।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য