pressশামীম রেজা ॥ দিনাজপুর শহরে সাংবাদিক আর প্রেস লেখা মটরসাইকেল চলাচলের সংখ্যা বেড়েই চলছে। অথচ এসব মটরসাইকেল চালকদের বেশীর ভাগই সাংবাদিকতার সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এবং মটরসাইকেলে রেজিষ্ট্রেশনও করা নেই। এদের অনেকে আন্ডার গ্রাউন্ড পত্রিকার (যে পত্রিকা বাজারে নেই) নাম ব্যবহার করে দাপটের সাথে বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে।
সাংবাদিকতার সাথে সংশ্লিষ্ট নয় এমন কিছু ব্যক্তি তাদের মটরসাইকেলের আগে-পিছে প্রেস/সাংবাদিক লিখে দাপটের সাথে চলাচল করছে। রেজিষ্ট্রেশন বিহীন এসব মটরসাইকেল চালকদের কেউ কেউ মাদক সেবী আবার কেউ মাদক ব্যবসা সাথে জড়িত এমন গুঞ্জনও রয়েছে। মাদক স্পর্ট হিসাবে পরিচিত এলাকায় কথিত এসব সাংবাদিকদের মটরসাইকেলে ৩ জন আরোহীই বেশী দেখা যায়।
অনুসন্ধান নিয়ে জানা গেছে, এদের কেউ কেউ ঠিকাদারীসহ অন্য পেশায় জড়িত। আবার কেউ কেউ ঢাকাসহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে অনিয়মিত প্রকাশিত যেগুলো বাজারে পাওয়া যায়না এমন দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক এমনকি ত্রৈমাসিক পত্রিকা এবং অজানা কিছু অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয়ে অপরাধমুলক কাজে মটরসাইকেল ব্যবহার করছে। তবে প্রেস লেখা একজন অসাংবাদিক ব্যক্তি স্বীকার করেছেন, হরতাল-অবরোধের কারনে চলাচলের সুবিধার জন্য তিনি তার মটর সাইকেলে সাংবাদিক শব্দটি লিখেছেন।
অভিযোগ উঠেছে, সংবাদ উৎস স্থলে এসব কথিত সাংবাদিকদের কখনও দেখা না গেলেও সাংবাদিক পরিচয়ে এরা মটর সাইকেল ব্যবহার করে বিভিন্ন স্থানে নানা অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে বিষয়টিতে প্রশাসনের নজর দেয়া প্রয়োজন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য