2-australiaআন্তর্জাতিক ডেস্ক: অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড রাজ্যে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় মার্সিয়ার আঘাতে এক হাজার ৫শ’ বাড়িঘরের ক্ষতি হয়েছে এবং হাজার হাজার লোক বিদ্যুৎবিহীন রয়েছে। এ ছাড়া মার্সিয়ার আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার জন্য সব ধরনের প্রচেষ্টা গ্রহণ করা হয়েছে বলে অস্ট্রেলিয়ার কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।
অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে শুক্রবার দুটি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনেছে। ঘূর্ণিঝড়ে বিভিন্ন ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। গাছপালা উপড়ে বিদ্যুৎ লাইনে পড়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে। উপকূলীয় এলাকাগুলো থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।
বার্তা সংস্থা এএফপি’র খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় ভোররাতে কুইন্সল্যান্ড উপকূলে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় মার্সিয়া আঘাত হানে। এর কয়েক ঘণ্টা পরই আরেক শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ল্যাম উত্তরাঞ্চলীয় উপকূলে আছড়ে পড়ে। এর আঘাতে এলচো দ্বীপের কাছে আদিবাসী-অধ্যুষিত এলাকায় ব্যাপক ক্ষতি হয়। এতে অসংখ্য বাড়ির ছাদ উড়ে এবং গাছপালা উপড়ে যায়।
কুইন্সল্যান্ড রাজ্যের প্রধানমন্ত্রী অ্যানেস্টাসিয়া পালাসজাক বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় মার্সিয়ার আঘাতে এক হাজার ৫শ’ বাড়িঘরের ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে অনেক বাড়িঘরের কাঠামোর ক্ষতি হয়েছে।’
তিনি বলেন, ‘রাজ্যের ইয়েপুন ও রকহ্যাম্পটনে প্রায় একশ’ বাড়ি সাংঘাতিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। লোকজন এখনও তাদের বাড়িতে ফিরতে পারেনি।’ এসব এলাকায় বিদ্যুৎ ও টেলিফোন সংযোগ পুনরায় চালু করতে জোর তৎপরতা চলছে।
আবহাওয়া ব্যুরো রোববার কুইন্সল্যান্ড রাজ্যে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার সতর্কতা তুলে নিয়েছে। তবে রাজ্যের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের কিছু অংশে এখনও বন্যা সতর্কতা জারি রাখা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য