5-yemenআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইয়েমেনে রোববার জাপানি দূতাবাস সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। শিয়া মিলিশিয়ারা রাজধানী সানা দখলে নেয়ার পর বিদেশি কূটনীতিকদের নিরাপত্তাজনিত আশংকার প্রেক্ষাপটে জাপান এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ইয়েমেনে নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতির কারণে রোববার থেকে সানায় জাপানি মিশনের কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। এ ছাড়া মিশন কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাতারে জাপানি দূতাবাসে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সেখান থেকে তারা কিছু দায়িত্ব পালন করবে।
নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতির কারণে নিজ দেশের নাগরিকদের ইয়েমেন ছাড়ারও নির্দেশ দিয়েছে জাপান।
গত ৬ ফেব্রুয়ারি ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ ও গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন সরকারি ভবন দখল করে নেয়ার পর হুতি মিলিশিয়ারা দেশটির সরকার ও পার্লামেন্ট ভেঙে দেয়।
এক রক্তক্ষয়ী গণঅভ্যূত্থানের পর ২০১২ সালের শুরুতে ইয়েমেনের দীর্ঘদিন ধরে থাকা প্রেসিডেন্ট আলী আব্দুল্লাহ সালেহ পদত্যাগ করার পর থেকে দেশটিতে স্থিতিশীলতা আসেনি। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আল কায়েদা বিদ্রোহীদের যুদ্ধ এবং দক্ষিণাঞ্চলের বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন।
কয়েক বছর ধরে চলা তীব্র রাজনীতিক সঙ্কটের পর আঞ্চলিক, রাজনৈতিক, গোষ্ঠিগত ও সম্প্রদায়গত হানাহানিতে বিভক্ত হয়ে পড়া ইয়েমেন এখন পূর্ণমাত্রার গৃহযুদ্ধের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।
বিশ্বের শীর্ষ তেল রপ্তানীকারী দেশ সৌদি আরবের সঙ্গে দেশটির দীর্ঘ সীমান্ত রয়েছে। ইয়েমেনের পরিস্থিতি সৌদি আরবের জন্যও অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য