IMG_20150214_161016ইফতেখার আহমেদ খান বাবুঃ দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ভূল ঔষধ দিয়ে দোকানদার মেরে ফেলল পুকুরের সব  মাছ থানায় অভিযোগ। অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, ঘোড়াঘাট উপজেলার ডুগডুগী বাজারের কীটনাশকের দোকানদার শফিকুল ইসলাম (শফিক) ও মিজানুর রহমান দীর্ঘ দিন যাবত মাছের খাবার ও ঔষধ সহ বিভিন্ন প্রকার মালামালের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছেন। সেই সুবাদে জনৈক আব্দুল মজিদ প্রধান, পিতা- মৃত ইসাহাক আলী, গ্রাম- চৌড়িয়া, তাহার চাষ করা পুকুরের থাকা মাছের উকুন নিরাময়ের জন্য ঔষধ ক্রয় করতে গেলে দোকানদার শফিকুল ইসলাম, আব্দুল মজিদ প্রধানের অজান্তে তাহাকে বিষের বোতল উকুন মারা ঔষধ হিসেবে “কট ১০ ইসি” নামক বোতল প্রদান করেন। যাহা আব্দুল মজিদ প্রধান মাছের উকুন নিরাময়ের ঔষধ মনে করে নিজ চাষকৃত পুকুরে ছিটাইয়া দেন। ছিটাইয়া দেওয়ার ৪-৫ঘন্টার মধ্য পুকুরের সব মাছ মরে ভাসতে থাকে। তৎক্ষনাত উপায়ন্তর না পেয়ে আব্দুল মজিদ প্রধান খালি বোতলটি উক্ত শফিকুল ইসলামের দোকানে গিয়া তাকে বোতল দেখিয়ে পুকুরের মাছ মরার খবর জানালে তিনি তাহা পেশী শক্তি দ্বারা দমন করার জন্য আব্দুল মজিদ প্রধানকে বিভিন্ন প্রকার ভয় ভীতি প্রদর্শন করে সেখান হইতে তাড়িয়ে দেন। বিভিন্ন ভাবে বৈঠকের মাধ্যমে চেষ্টা করে আপোষ মীমাংসার বিষয়টি সুফল না পেয়ে অবশেষে গত ০৬/০২/২০১৫ইং তারিখে ঘোড়াঘাট থানায় একটি অভিযোগ আব্দুল মজিদ প্রধান দায়ের করেছেন বলে জানা যায়। যার সাধারন ডায়রী নং- ৩০৫। অভিযোগটিতে আব্দুল মজিদ প্রধান ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা ক্ষয়ক্ষতির অভিযোগ করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য