আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা থেকেঃ  গাইবান্ধায় যাত্রীবাহী বাসে পেট্রোল বোমা হামলায় নিহত ছয় জনের পরিচয় মিলেছে। তারা হলেন- জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের ফারাজিপাড়া গ্রামের দুলু মিয়ার ছেলে সৈয়দ আলী (৪৫), শাজাহান মিয়ার ছেলে সুমন মিয়া (২২), বলরাম দাসের মেয়ে শিল্পী দাস (৮), শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী হালিমা (৩০), তারা মিয়ার স্ত্রী সোনা বানু (৩৫) ও ছেলে সুজন (৯)। এদের মধ্যে সৈয়দ আলী, সুমন, শিল্পী ও হালিমা ঘটনাস্থলে ও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে শুক্রবার রাত আড়াই টার দিকে শিশু সুজন এবং শনিবার বিকেলে তার মা সোনা বানু মারা যান। শুক্রবার দিনগত রাত পৌনে ১১টার দিকে গাইবান্ধা-পলাশবাড়ী সড়কের তুলসীঘাট এলাকায় পেট্রোল বোমা হামলার শিকার হন তারা। এ ছাড়া রমেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ২০ জনের মধ্যে ছয়জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন বার্ন ইউনিটের প্রধান সহকারী ডা. মারুফুল ইসলাম। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার পাঁচপীর থেকে নাপু এন্টারপ্রাইজের একটি বাস অর্ধশত যাত্রী নিয়ে ঢাকা যাচ্ছিল। পথে তুলসিঘাট এলাকায় বাসে পেট্রোল বোমা ছোঁড়ে দুর্বৃত্তরা। চন্ডিপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা আহম্মেদ নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত করেছেন। শনিবার সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জের পাঁচ জনের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য