Dinajpur-05-02-15

জিন্নাত হোসেন ॥ সারা দেশে চলমান সহিংসতা এবং অবরোধের নামে পেট্রোল বোমা মেরে সাধারণ মানুষ হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বদ্যিালয়ের প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম।
৫ ফেব্র“য়ারী বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মুখে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানবন্ধনে নেতৃত্ব দেন প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের সভাপতি ও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. রুহুল আমিন। মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অংশ নেন।
মানববন্ধনে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. রুহুল আমিন বলেন, ভয়াবহ পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করা জঙ্গী ও অসভ্য কাজ। আমরা এসব নাশকতামূলক কাজের ঘৃণা করি এবং তীব্র প্রতিবাদ জানাই। একই সঙ্গে ১৫ লক্ষ ছেলে মেয়ে যাতে নির্বিঘেœ এসএসসি পরীক্ষা দিতে পারে তার জন্য কর্মসূচি প্রত্যাহারের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দেশ যখন উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, জিডিপি বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই সময় রাজনৈতিক কর্মসূচীর নামে দেশকে অস্থিতিশীল করা হচ্ছে। এই চক্রের বিরুদ্ধে সবাইকে সাহসিকতার সাথে ঐক্যবোধ্যভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানান তিনি।
দেশের মানুষকে জিম্মি করে ২০ দলীয় জোট হরতাল অবরোধের নামে যে নাশকতা সৃষ্টি করছে তার তীব্র প্রতিবাদ জানায় হাবিপ্রবি’র প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরাম। তারা মানুষ পুড়িয়ে মারার বিরুদ্ধে জাতীয় সংসদে আইন করার সুপারিশ করেন।
মানববন্ধনে প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. বলরাম রায় এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মো.রুহুল আমিন। শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মো. আনিস খান, প্রফেসর ড. বিকাশ চন্দ্র সরকার, প্রফেসর ড. মো. ফজলুল হক, কর্মকর্তাদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. নজিবুর রহমান, মো. ফেরদৌস আলম, আ. ন. ম. ইমতিয়াজ হোসেন, কর্মচারীদের মধ্যে আব্দুর রহিম, ছাত্রদের মধ্যে মো. জোহা, তারেক চৌধুরী, নহিদ আহমেদ নয়ন প্রমূখ।


 




 

 


মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য