জিন্নাত হোসেন ॥ দিনাজপুর মেডিকেল কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও কলেজের সরস্বতী পূজাদ্যাপন পরিষদের পৃষ্ঠপোষক অধ্যাপক ডাঃ কান্তা রায় রিমি বলেছেন, শ্বেতপদ্মাসনা, শুভ্রবস্ত্রাবৃতা, আয়তলোচনা দেবী সরস্বতী মানব মনের চিরায়িত জ্ঞান শক্তির প্রকাশ। তুষারধবলা, হংসবাহিনী দেবী বীনাপানির অপার করুনাতেই মানব হৃদয়ে প্রজ্জ্বলিত হয় অন্ধকার অন্ধকার হতে মুক্তির আলো, সঞ্চরিত হয় সেই ইচ্ছাশক্তির যা মানুষকে প্রেরণা যোগায় চতুর্দিকের অবিচার হিংস্রতা আর অনাচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হয়ে ওঠার শক্তিকে বিকশিত করতে। দেবীর এই অশেষ কৃপার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের নিমিত্তে প্রতি বৎসরের ন্যায়-এবারও আমরা সমবেত হয়েছি কলেজ প্রাঙ্গনে। ২৫ জানুয়ারী রোববার দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গনে সরস্বতী পূজা উপলক্ষে কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ কান্তা রায় রিমি এসব কথা বলেন। দিনাজপুর মেডিকেল  কলেজ সরস্বতি পূজা উদ্যাপন পরিষদ এর সভাপতি ডাঃ সুবীর কুমার সরকার এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শিমুল তালুকদার এর পরিচালনায় এবং পূজা উদ্যাপন পরিষদ এর সকল নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় দিনাজপুর মেডিকেল কলেজে সকাল ৬টায় প্রতিমা স্থাপন, সকাল ৭টায় পূজা শুরু সকাল ৮টায় পুষ্পাঞ্জলি, সকাল ৯টায় প্রসাদ বিতরণ, দুপুর ১টায় অতিথি আপ্যায়ন, সন্ধ্যা ৬টায় সন্ধ্যা আরতি, সন্ধ্যা ৭টায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং রাত ১১টায় র‌্যাফেল ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য