জিন্নাত হোসেন ॥ বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রস্তাবিত নতুন জাতীয় বেতন স্কেলে অন্তর্ভূক্ত করার দাবীতে বাংলাদেশ শিক্ষক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ দিনাজপুর  জেলা শাখার উদ্যোগে মিছিল ও জেলা প্রশাসক এর মাধ্যমে প্রধানন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। স্মারকলিপি গ্রহণ করেন জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী।
Dinajpur-22-01-15--২২ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আহবায়ক মোঃ আহসানুল হক মুকুল, যুগ্ম আহবায়ক মোঃ মাতলুবুল মামুন, যুগ্ম আহবায়ক বদিউজ্জামান বাদল স্বাক্ষরিত প্রধানমন্ত্রী বরাবর প্রেরিত স্মারকলিপিতে বলা হয়, দেশের প্রায় ২৭ হাজার এমপিও ভূক্ত বেসরকরী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ লক্ষাধীক শিক্ষক-কর্মচারী ১৯৯৭, ২০০৫ ও ২০০৯ সালের যথাক্রমে ৫ম, ৬ষ্ঠ ও ৭ম বেতন কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়ন হওয়ার দিন থেকেই সকল সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে একই দিনে একযোগে বেতন স্কেল ভোগ করে আসছেন। এমনকি বর্তমানের প্রচলিত ২০% মহার্ঘ্য ভাতাও সরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের সাথে একই দিনে একযোগে এমপিও ভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীরাও ভোগ করে আসছেন। গত ২১ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখে ৮ম বেতন কমিশন কর্তৃক পেশকৃত রিপোর্টে বেসরকারী এমপিও ভূক্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের ক্ষেত্রে এই স্কেল ৬ মাস পরে কার্যকর করার সুপারিশ করা হয়েছে জানতে পেরে শিক্ষক সমাজ ক্ষুদ্ধ ও মর্মাহত। রিপোর্ট পেশ কার দিন থেকেই শিক্ষক সমাজ এর তীব্র প্রতিবাদ করে ও বেসরকারী শিক্ষ প্রতিষ্ঠানের পূর্বের ন্যায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রজাতন্ত্রের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের একযোগে বেতন স্কেল কার্যকর করার দাবি জানিয়ে আসছে।
স্মারকলিপি প্রদান কালে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি দিনাজপুর জেলা শাখা এবং বাংলাদেশ শিক্ষক-কর্মচারী ঐক্য পরিষদ দিনাজপুর জেলা ও উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



 

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য