২০ দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধের জেরে দিনাজপুরে বড়পুকুরিয়া ও মধ্যপাড়া খনির কয়লা ও পাথর সরবরাহ বন্ধ হয়ে পড়েছে।

খনি সূত্রে জানাগেছে, দেশের দূরদূরান্ত এলাকার ভাটা মালিকেরা কয়লার ডিও ক্রয় করলেও পরিবহন করতে না পারায় তারা খনি থেকে কয়লা সরবরাহ নিতে পারছে না। একই অবস্থা মধ্যপাড়া কঠিন শিলা খনিতে সেখানেও বিভিন্ন পাথর ব্যবসায়ীরা পাথার কেনার চাহিদা দিলেও তারাও অবরোধের কারনে পরিবহন করতে না পেরে পাথর সরবরাহ নিতে পারছেন। এতে প্রতিদিনে খনিটিতে অবিক্রিত পাথরের মজুদ বাড়ছে এবং খনিটি প্রতিদিনে কোটি টাকার উর্দ্ধে লোকসান গুনতে হচ্ছে।

সোমবার বড়পুকুরিয়া কয়লা খনিতে গিয়ে দেখা যায় কয়লা নিতে আসা শতশত ট্রাক খনি গেটে সারিবদ্ধ ভাবে দাড়িয়ে আছে। ট্রাক চালকেরা জানায় ট্রাকে কয়লা বহন করা ব্যাপক ঝুকি দেখা দিয়েছে। অবরোধের মধ্যে কোন দূরঘটনার সিকার হলে কয়লাটি জ্বালানী দ্রর্ব হওয়ায় তা ধ্বংস হয়ে যাবে। একারণে তারা কয়লা নিয়ে দূর পাল্লার পথ পারি না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে খনির গেটে অপেক্ষা করছেন।

বড়পুকুরিয়া খনি কতৃপক্ষ জানান কয়লার চাহিদা প্রচুর থাকায় ইট-ভাটা মালিকেরা হুমড়ি খেয়ে কয়লা ডিও কিনলেও তারা পরিবহন করতে না পেরে খনি থেকে কয়লা সরবরাহ নিতে পারছেনা। এতে  করে কয়লা ইয়ার্ডে কয়লার পরিমান বৃদ্ধি পাওয়ায়  কয়লার স্থুপে ঝুকি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এদিকে ভাটা মালিকেরা জানায় কয়লার অভাবে ভাটা বন্ধ হয়ে গেলেও অবরোধের কারনে কয়লা সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এতে করে স্তমিত হয়ে পড়েছে ভাটার কার্যক্রম। এ অবস্থা চলতে থাকলে যে পরিমান টাকা ভাটায় বিনিয়োগ করা হয়েছে তার অর্ধেকও উঠবে না। তথ্যঃ মোস্তাফিজুর রহমান সুমন, ফুলবাড়ী



 
 
 



 

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য