প্রতিদিনই বদলে যাচ্ছে চলচ্চিত্রের ভাষা। প্রতিনিয়তই বদলে যাচ্ছে দর্শকের রুচীও। ঢাকাই সিনেমাতেও এসেছে পরিবর্তন। দেশের সিনেমা এখন ডিজিটাল যুগে প্রবেশ করেছে। সেদিক থেকে ২০১৪ সালটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
গত বছরটি কেমন কেটেছে বড় পর্দার শিল্পীদের? এ নিয়ে রাইজিংবিডি ‘ঢাকাই চলচ্চিত্রে ২০১৪ সাল’শিরোনামে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে। এই সিরিজের ষষ্ঠ প্রতিবেদন মডেল ও চিত্রনায়ক আরেফিন শুভকে নিয়ে।
ঢাকাই চলচ্চিত্রের অনেকেই ছোট পর্দা থেকে এসেছেন। এর মধ্যে কেউ কেউ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন। আবার কেউ কেউ হয়েছেন সমালোচিত। আরেফিন শুভও ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দায় এসেছেন। ২০১৪ সালে আরেফিন শুভ অভিনীত তিনটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। এ ছাড়া কয়েকটি সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। এরইমধ্যে মিডিয়া পাড়ায় তাকে নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সমালোচনাও চলছে বেশ জোড়ালোভাবেই। উঠেছে নানান অভিযোগও।
আরেফিন শুভ অভিনীত অগ্নি সিনেমাটি গত বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পেয়েছে। এ সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। অ্যাকশনধর্মী এ সিনেমাটি শুভ-মাহির প্রথম জুটি।
ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত এই সিনেমায় এক ছদ্মবেশী খুনির চরিত্রে অভিনয় করেন মাহি। মিশন সফল করতে একের পর এক খুন করে থাইল্যান্ডে ‘খুনি সুন্দরী’বলে পরিচিতি পেয়ে যান তিনি। এটি মূলতো নায়িকা কেন্দ্রীক সিনেমা। এ সিনেমায় মাহি-শুভ ছাড়াও অভিনয় করেছেন আলীরাজ, ড্যানি সিডাক, ইফতেখার চৌধুরী, কাবিলা, ডেইজি ও মিশা সওদাগর।
২০১৪ সালের সুপারহিট সিনেমার মধ্যে একটি অগ্নি। চলচ্চিত্র বোদ্ধার মনে করছেন, এ সিনেমায় মাহির চরিত্রটি ছিল অসাধারণ। এ সিনেমার নায়ক মাহি। মাহিকে কেন্দ্র করেই এ সিনেমার গল্প। সিনিমাটি নায়িকা নির্ভর। এতে শুভর তেমন কোনো ভূমিকা ছিল না।
মুহাম্মদ মুস্তাফা কামাল রাজ পরিচালিত তারকাটা সিনেমাটি গত বছরের ৬ জুন, সারাদেশের ৯০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন মৌসুমী, আরেফিন শুভ, বিদ্যা সিনহা মিম, ডা. এজাজ, ফারুখ আহমেদ, হাসান মাসুদ, আহমেদ শরীফ প্রমুখ। সিনেমাটি নির্মিত হয়েছে পিংপং এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে। এ সিনেমার গানগুলোর সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন আরফিন রুমি। গানের কথা  লিখেছেন কবির বকুল, জাহিদ আকবর, অনুরূপ আইচ, জনি হক, মাহমুদ মানজুর ও আরফিন রুমি।
সিনেমাটি ব্যবসায়িকভাবে ভালোই গেছে, তবে প্রচারণার শীর্ষে ছিল। গত বছরের সবচেয়ে বেশি প্রচারণা চালিয়েছে এ সিনেমাটি। এ নিয়ে কেউ কেউ মনে করছেন- আরেফিন শুভ অভিনয়ের চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকসহ মিডিয়ার বিভিন্ন মাধ্যমে নিজের প্রচারণার কাজ নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকেন। দেশের একজন সিনিয়র নির্মাতা তাকে ফেসবুক নায়ক বলেও আখ্যা দিয়েছেন।
এরপর গত বছর শুভ অভিনীত শেষ সিনেমা কিস্তিমাত মুক্তি পায় ২৬ সেপ্টম্বর। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেন চিত্রনায়িকা আঁচল আখি। ঈদে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর মধ্যে আলোচনায় ছিল আশিকুর রহমান পরিচালিত কিস্তিমাত সিনেমাটিও।
কিস্তিমাত’র মুক্তির আগে সেই আগের মতোই ফেসবুক ও পত্র-পত্রিকায় ঢাকঢোল পিটিয়েছেন শুভ।  কিস্তিমাত দর্শকদের মাত করবে বলেও জানান এ অভিনেতা। কিস্তিমাত ঠিকই মাত করেছে কিন্তু শুভ হয়েছেন সমালোচিত। এছাড়াও সিনেমাটি দর্শক ভালোভাবে নিলেও সিনেমার নায়ক শুভর সংলাপ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করেন চলচ্চিত্র প্রেমীরা।
এ বিষয়ে সিনিয়র এক অভিনেতা বলেন, শুভ নাটকের জন্য ঠিক আছে। তবে ও এখনও সিনেমার সংলাপই বলতে পারে না।
এ ছাড়া অনেক নির্মাতা বলেছেন, শুভ কয়েকটি সিনেমার কাজ করেই নিজেকে শাকিব খান মনে করছে। শুভ সিনিয়রদের সম্মান করে না। পরিচালকদের নির্দেশনা ঠিকমতো মানে না। আর ডিমান্ডও অনেক বেড়ে গেছে। এটা একজন উঠতি নায়কের ক্ষেত্রে মোটেও ভালো না।
এদিকে আরেফিন শুভকে চলচ্চিত্রে নিয়ে এসেছেন নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস। তিনি  বলেন, একজন শিল্পী ছোট পর্দা থেকে বড় পর্দায় আসলে, তাকে নতুন করে অভিনয় শিখতে হয়। দুটোর অভিনয় দু’রকম।
চলচ্চিত্রে শুভ কেমন অভিনয় করছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নিজের সন্তানকেতো খারাপ বলা যাবে না। তবে শুভর মেধা আছে, ও চাইলে ভালো অভিনয়শিল্পী হতে পারবে।
শুভ অভিনীত ওয়ার্নিং সিনেমাটি এ বছরের ৯ জানুয়ারি, সারাদেশে মুক্তি পাবে। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন মাহি। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন সাফিউদ্দিন সাফি।

 
 


মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য