কাশী কুমার দাস ॥ দিনাজপুর শহরের রামনগর মহল্লায় (মদিনা মসজিদ মোড় সংলগ্ন) প্রতিষ্ঠিত মুরব্বি ছাউনি (লাল ঘর) কার্যক্রম পরিচালিত হওয়ার সুবাদে মহল্লাবাসি এখন সুফল পেতে শুরু করেছে। জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় কিছু যুবক মাদক সহ বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কাজে লিপ্ত হয়ে মহল্লার সামাজিক পরিবেশ নষ্ট করে আসছিল। এলাকার মসজিদের মুসল্লিবৃন্দ এবং মুরব্বিরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে মাদক ও অসামাজিক কাজ প্রতিরোধ কল্পে মুরব্বি ছাউনি গড়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। লাল ঘরের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয় মুরব্বি ছাউনি। তার পর থেকে শুরু হয় মাদক প্রতিরোধ ও অপরাধ নির্মুল অভিযান। “ধরা পড়লে গণ ধোলাই” এই শ্লোগান এলাকায় প্রচার করে অপরাধ প্রতিরোধ করে চলছে মুরব্বিরা। পর্যাক্রমে প্রতিদিন সন্ধার পর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত লাল লাঠি, লাল বাশি নিয়ে পাহাড়া দিয়ে প্রতিরোধ করে চলছে মাদক ও অপরাধ মূলক কার্যক্রম। যার ফলে মহল্লাবাসী এখন সুফল পেয়ে শুরু করেছে। মাদকসেবীরা এতে অনেক সচেতন এবং ভালো হয়েছে। বিশেষ করে তারা তাদের ভুল বুঝতে পেরে এখন নামাজ পড়ছে। উল্লেখ্য গত ৭ নভেম্বর’১৪ পুলিশ সুপার রুহুল আমিন ও র‌্যাব সদস্যা এসে এই মুরুব্বি ছাউনির উদ্বোধন করে যান। আমাদের সমাজে প্রতিনিয়ত মাদকসেবীর সংখ্যা বাড়ছে এবং অসামাজিক কার্মকান্ড বৃদ্ধিা পাচ্ছে। আমরা চাই প্রতিটি মহল্লায় মহল্লায় এই মুরব্বি ছাউনি প্রতিষ্ঠিত হলে মাদকমুক্ত একটি সুন্দর সমাজ আমরা আমাদের আগামী প্রজন্মকে উপহার দিতে পারব।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য