আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সনি পিকচার্সে সাইবার হামলার ঘটনা ও ও তা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাদানুবাদের মধ্যেই দ্বিতীয়বারের মতো ইন্টারনেট বিপর্যয়ের কবলে পড়লো উত্তর কোরিয়া। শনিবার উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ং-এর স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় দেশটির ইন্টারনেট ও থ্রিজি মোবাইল নেটওয়ার্ক স্থবির হয়ে পড়ে।

রাত সাড়ে নয়টা পর্যন্ত পরিস্থিতি একই রকম ছিল বলে জানিয়েছে সিনহুয়া। এ দিন সকালে সনি পিকচার্সে সাইবার হামলার দায় অস্বীকার করে নিজ দেশের ইন্টারনেট ব্যবস্থায় বিপর্যয় ও অস্থিরতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করে উত্তর কোরিয়ার জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশনের পলিসি ডিপার্টমেন্ট। এক বিবৃতিতে ডিপার্টমেন্টের এক মুখপাত্র সনি পিকচার্সে হামলার দায় অস্বীকার করে যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবী করেন। বিবৃতিতে বিষয়টি নিয়ে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে একটি যৌথ তদন্ত পরিচালনার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের কাল্পনিক হত্যার প্রচেষ্টা নিয়ে সনি পিকচার্স একটি কমেডি সিনেমা তৈরি করেছিল। “দ্য ইন্টারভিউ” নামের এই ছবিটি ডিসেম্বরে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই নভেম্বরের শেষ দিকে সনি পিকচার্স বড় ধরনের সাইবার হামলার শিকার হয়। এতে ঘোষিত তারিখে ছবিটি মুক্তি দেয়ার সিদ্ধান্ত বাতিল করে সনি।

এ সাইবার হামলার জন্য উত্তর কোরিয়াকে দায়ী করে যুক্তরাষ্ট্র। অভিযোগ অস্বীকার করে উত্তর কোরিয়া। এই পর্ব চলার মধ্যেই গত সপ্তাহের প্রথম দিক থেকে উত্তর কোরিয়ার ইন্টারনেট সেবা ব্যবস্থায় অস্থিরতা শুরু হয়, এরই এক পর্যায়ে মঙ্গলবার দেশটির ইন্টারনেট সেবা প্রায় নয় ঘন্টা পুরোপুরি নিশ্চিল হয়ে ছিল। পরে আবার তা চালু হলেও স্বাভাবিক অবস্থা আর ফিরে আসেনি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য