কাশী কুমার দাস ॥ দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজী বলেছেন, প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠিকে ছেড়ে কখনো টেকসই  উন্নয়ন সম্ভব হবে না। দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ১০ ভাগ প্রতিবন্ধী মানুষ রয়েছে। তাদের সার্বিক উন্নয়ন ঘটাতে হলে চাই দৃষ্টি ভঙ্গীর পরিবর্তন। প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন বাস্তবায়ন করতে জিও-এনজিও প্রতিনিধিদের এগিয়ে আসতে হবে।

“টেকসই উন্নয়ন-প্রযুক্তি প্রসারন” এবারের প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ৩ ডিসেম্বর বুধবার আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস এবং জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজ সেবা কার্যালয় দিনাজপুর এর আয়োজনে এবং স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা সমূহর সহযোগিতায় বর্ণাঢ্য র‌্যালীর উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।

র‌্যালীটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শিশু একাডেমীতে আলোচনায় সভা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেব বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ আবু রায়হান মিঞা। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় সমাজ কল্যাণ পরিষদ ঢাকা’র সদস্য অধ্যক্ষ মোঃ ছফর আলী ও দিশারী প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক মোঃ মতিউর রহমান।

সভাপতিত্ব করেন সমাজ সেবা কর্যালয় দিনাজপুরের উপ-পরিচালক ষ্টিফেন মুর্মু। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন প্রতিবন্ধী রিসোর্স টিচার মোঃ আক্কাস আলী, প্রতিবন্ধী পূর্ণবার্সন বিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক বিলকিস আরা ফয়েজ, সম্প্রীতি প্রতিবন্ধী উন্নয়ন সংস্থার সাধারণ সম্পদাক সীমা, সিডিসির প্রতিনিধি শৈলেন চন্দ্র রায়, সিডিএর অনামিক পান্ডে ও মমতা পল্লী উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক  ও প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন দিনাজপুর এর সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইয়াকুব আলী।

সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন সমাজসেবা অফিসার (রেজিষ্টার) মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক। সার্বিক তত্ত্বাধানে ছিলেন অফিস সহকারী মোঃ গোলাম রব্বানী। সভায় প্রধান অতিথি প্রতিবন্ধী কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ  এবং সিডিসি কর্তৃক দেয়া টাই সাইকেল বিতরণ করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য