Birgonjরতন সিং, দিনাজপুর॥ দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থীদের প্রচারনায় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করছে। অন্যদিকে ভোটারদের মনে দেখা দিয়েছে বিরূপ প্রতিক্রিয়া। পাশাপাশি বীরগঞ্জ ও চিরিরবন্দর উপজেলায় একক প্রার্থী থাকায় জমে উঠেছে নির্বাচনের প্রচার-প্রচারনা।

আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারী দিনাজপুরের ২টি উপজেলা বীরগঞ্জ ও চিরিরবন্দরে ভোট গ্রহণ করা হবে। বীরগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে রয়েছেন ৫ জন। এদের মধ্যে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। চেয়ারম্যান পদে সাবেক এমপি ও দল বদলকারী মোঃ আমিনুল ইসলাম (ঘোড়া) আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের সমর্থন নিয়ে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। আর স্থানীয় এমপি মনোরঞ্জনশীল গোপালের সমর্থন নিয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আখতারুল ইসলাম চৌধুরী বাবুল (আনারস)। এমপি’র সমর্থন থাকায় ইউনিয়নগুলোতে বাবুল সুবিধাজনক অবস্থানে থাকলেও বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আমিনুল সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে। বলা যায় আওয়ামী লীগের ২ প্রার্থীর মধ্যে লড়াই হবে সেয়ানা সেয়ানা। আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাই কাকে বেছে নিবেন তা নিয়ে আছে প্রতিনিয়ত দ্বিধাসংকোচ।

আওয়ামী লীগের মতো বিএনপি’র ঘরেও বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় বেকায়দায় আছেন দল সমর্থিত প্রার্থী বীরগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি এ্যাডঃ মফিজউদ্দীন আহমেদ চৌধুরী (কাপপিরিচ)। তার প্রতিপক্ষ হয়ে নির্বাচনের মাঠ চোষে বেড়াচ্ছেন বিএনপি’র আরেক শক্তিশালী প্রার্থী রেজওয়ানুল ইসলাম রিজু (মোটরসাইকেল)। ১১টি ইউনিয়নের উপজেলা বীরগঞ্জের ইউনিয়নগুলোতে বিএনপি গত ২ বছর আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠন গুছিয়ে নিয়েছে। তবে উপজেলা সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা প্রত্যাহার করে এ্যাডঃ মফিজউদ্দীনের সাথে প্রচারনায় অংশ নেয়ায় দলের অধিকাংশ নেতাকর্মী মূল স্রোতের সাথে রয়েছেন।

বীরগঞ্জে জামায়াতের অবস্থান নড়বড়ে নয়। কেননা গত পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন জামায়াতের মোঃ হানিফ। এছাড়া ২০০১ সালের সংসদ নির্বাচনেও নির্বাচন ১ আসনে জয়লাভ করেছিলেন জামায়াতের মরহুম অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল কাফি। ইউনিয়নগুলোতে জামায়াতের সাংগঠনিক কাঠামো মজবুত থাকায় মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতায় যুক্ত হচ্ছেন জামায়াত প্রার্থী কেএম কুতুবউদ্দীন (দোয়াতকলম)। অনেক নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হুলিয়া থাকলেও প্রতিকুল পরিবেশে প্রচারনা চালিয়ে যাচ্ছেন কুতুবউদ্দীন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য