Pictureজিন্নাত হোসেন ॥ ভারতের পশ্চিম বঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর সাথে বাংলাদেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

২২ নভেম্বর শনিবার ভারতের পশ্চিম বঙ্গের কলকাতা হাওড়ার মন্দিরতলার নবান্ন অফিসে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, স্থলসীমানা ও শুষ্ক মৌসুমে বাংলাদেশ ও ভারত তথা পশ্চিম বঙ্গের মধ্যকার পানি বন্টন সমস্যা নিয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির নেতৃত্বে বাংলাদেশের সংসদীয় দলের ৮ সদস্যের সংসদীয় দলের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ বৈঠককালে উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকসূত্রে জানা যায় হাওড়ার মন্দিরতলার নবান্ন অফিসে  বিভিন্ন বিষয়ে একে আপরের সঙ্গে আলাপ করেন।

আলাপকালে বাংলাদেশের সংসদীয় প্রতিনিধি দলকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বলেন, আমি বাংলাদেশকে ভালোবাসী। আমাদের ভাষা ও সংস্কৃতি একে আপরকে নীবিড় বন্ধনে আবদ্ধ করেছে। ভালোবাসাকে সীমান্ত দিয়ে বিভক্ত করা যায়না। কারণ সব সমস্যারই সমাধান সম্ভব আলোচনার মাধ্যমে। বৈঠককালে পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি চারণ করেন এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে তার ভূমিকার কথা সশ্রদ্ধ চিত্তে উল্লেখ করেন। তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পশ্চিমবঙ্গ সফরের আমন্ত্রণ জানান। তিনি নিজেও ঢাকা সফরে যেতে আগ্রহী বলেও জানান। এছাড়া তিনি বলেন, দ্রুত আলোচনার মাধ্যমে সীমান্ত চুক্তি সমস্যার সমাধান হবে।

উল্লেখ্য, ভারত সরকারের আমন্ত্রণে দ্বি-পাক্ষীক বৈঠকে যোগদান উপলক্ষে ৮ (আট) সদস্যের একটি সংসদীয় প্রতিনিধি দল ২১ নভেম্বর থেকে ২৬ নভেম্বর ভারতের কলকাতা ও দিল্লী সফর করবেন। উক্ত প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিবেন জনাব মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির নেতৃত্বে সংসদীয় প্রতিনিধি দলের অন্যান্য সদস্যরা হলেন, পংকজ দেবনাথ এমপি, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি, নাহিম রাজ্জাক এমপি, মাহজাবিন খালেদ এমপি, শফিকুল ইসলাম শিমুল এমপি ও কাজী নাবিল আহম্মেদ এমপি ।

উল্লেখ্য এই প্রথম ভারতীয় বি জে পি সরকারের সাথে বাংলাদেশ সংসদীয় প্রতিনিধি দলের বৈঠক এর শুরুতে পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সাথে মত বিনিময় করলেন। এ সংসদীয় প্রতিনিধি দল ২৩ নভেম্বর ট্যুরিজম ও ভিসা সহজী করনের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনায় অংশ নিবেন ।

২৪ নভেম্বর বিজেপির উচ্চপর্যায়ের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সংঙ্গে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও গণতন্ত্রর চর্চার বিভিন্ন দিক এবং দু’দেশের আঞ্চলিক সমস্যা নিয়ে উম্মুক্ত আলোচনায় বসবেন। পরে এ সংসদীয় প্রতিনিধি দলটি ভারতীয় লোকসভায় মাননীয় স্পীকার মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন মন্ত্রিবর্গ, এমপি বৃন্দ এবং কংগ্রেসনেতা রাহুল গান্ধীর সঙ্গেও মতবিনিময় করবেন। অবসর প্রাপ্ত কূটনীতিবিদবৃন্দ, খ্যাতনামা সাংবাদিকবৃন্দ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিবৃন্দ সহ শিক্ষাবিদদের সাথে এক মত বিনিময় সভায় অংশ গ্রহণ করবেন।

প্রতিনিধি দল ২৫ নভেম্বর ভারতের ইলেকশন কমিশনের কমিশনারবৃন্দের সাথে গনতন্ত্র উত্তরণে সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে আধুনিক তথা ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতিতে নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে এক বিশেষ আলোচনা সভায় মিলিত হবেন। এ ছাড়া বিবেকানন্দ ফাউন্ডেশনে বিশেষ আলোচনান্তে এ সফর শেষ করবেন এবং ৮ (আট) সদস্যের এ বিশেষ সংসদীয় প্রতিনিধি দলটি আগামী ২৬ নভেম্বর ২০১৪  দেশে প্রত্যাবর্তণ করবেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য