SAM_8514 copyকাশী কুমার দাস ॥ সোমবার বাংলাদেশ জাতীয় যহ্মা নিরোধ সমিতি (নাটাব) আয়োজিত চিরিরবন্দর উপজেলার দারুল ফালাহ্ আলিম মাদ্রাসা ও বিএম কলেজের শিক্ষকদের নিয়ে যহ্মারোগ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নাটাব দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি তাহের উদ্দিন আহমেদ এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল মজিদ সরকার। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোঃ ইউসুফ আলী ও ল্যাম্ব হাসপাতালের ম্যানেজার অনুপ কুমর দাস। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন এবং নাটাবের চলমান কার্যক্রম তুলে বক্তব্য রাখেন নাটাব দিনাজপুর আঞ্চলের প্রতিনিধি মোঃ কাওছার উদ্দিন।

মুক্ত আলোচনা করেন নাটাব সদস্য মোঃ জাকিরুল ইসলাম জাকির, শিক্ষক তহমিনা খাতুন, মোঃ আকবর আলী, নুরুল ইসলাম, মোঃ ইউনুস আলী প্রমুখ। প্রধান অতিথি ডাঃ আব্দুল মজিদ সরকার বলেন যহ্মা একটি জীবানু ঘটিত সংক্রামক রোগ। যহ্মা রোগের জীবানু হচ্ছে মাইকো ব্যাকটেরিয়াস টিউবার কিউলোসিস নামক ব্যাকটেরিয়া।

বাংলাদেশে বছরে প্রতি লাখে যহ্মা রোগে আক্রান্ত হয় ২২৫ জন মানুষ। এদের ৭০ থেকে ৮০ ভাগই দরিদ্র। বছরে যহ্মার কারণে ৪৫ জন লোকের মৃত্যু হয়। শিক্ষকরা হচ্ছে মানুষ বানাবার কারিগর। যহ্মা রোগ প্রতিরোধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে শিক্ষকদের ভূমিকা যথেষ্ট রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য