Mahendra Singh Dhoni, Virat Kohliতিনি কখন যে কী করবেন, কেউ কল্পনাও করতে পারেন না। হুট করেই একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে বসেন, অবশ্য অবশ্যই সেটা পরিস্থিতি যাচাই করেই। এজন্য অনেকে বিরাট কোহলির নেতৃত্বের ধরন দেখে তাকে ‘মিস্টার আনপ্রেডিক্টেবল’ বলে রায় দেয়া শুরু করেছেন। কটক থেকে আহমেদাবাদ সবখানেই চমক উপহার দিয়েছেন কোহলি। সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে খেলার ২৪ ওভারেই ব্যাটিং পাওয়ার প্লে নিয়ে মাত করা। আর দ্বিতীয় খেলায় আম্বাতি রায়ডুর ব্যাটিং অর্ডার পরিবর্তন করে তিনে নিয়ে আসা। রোববার সিরিজ জয়ের হাতছানি দেয়া ম্যাচেও কী নতুন কোনো চমক দেবেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘নতুন সূর্য’? কোহলি কিন্তু অপেক্ষা করতে বলছেন। বেশি করে আলোচনা হচ্ছে ধোনি ও কোহলির নেতৃত্বের পরস্পর পরিমাপন নিয়ে। ঠিক এই কারণেই অনেক ভারতীয় ভক্তরা বলছেন, ধোনি যদি মিস্টার কুল হন অর্থাৎ, ঠান্ডা মাথা যদি এমএসডির সম্পদ হয়, তাহলে কোহলির সম্পদ হলো আত্মনিবেদন ও আবেগ। অনুশীলনে ফুটবল অনুশীলন থেকে নেট ব্যাটিং, প্রেস কনফারেন্স থেকে টিম মিটিং সবখানেই মহাসিরিয়াস দিল্লির ব্যাটসম্যান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য