Dinajpur-06-11-14---জিন্নাত হোসেন ॥ পকৃত মূল আপরাধীদের বাঁচাতে হাবিপ্রবির ছাত্রদের বহিষ্কার করা হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষার প্রথম আটক পরীক্ষার্থী সকলের সামনে জবানবন্দিতে বলেছেন আমাকে এই ক্যালকুলেটরটি আমার বন্ধুর বড় ভাই দিয়েছেন। তিনি ঢাকার একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স পাশ করেছেন তার নাম মনির।

তিনি ৫০ হাজার টাকার চুক্তিতে আমাকে এটি দিয়েছে। কিন্তু ঘটনার পর সেই আটক শিক্ষার্থীকে পুলিশের হাতে তুলে না দিয়ে ভিসি’র কার্যালয়ে ৫ ঘন্টা রেখে ভয় ও লোভের মাধ্যমে ছেলেটিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যদের নাম বলতে বাধ্য করা হয়।

কিন্তু অতিব দুঃখের বিষয় আটককৃত পরীক্ষার্থী যেখানে বলেছেন হাবিপ্রবির ক্যাম্পাসের কাউকে সে চিনে না। আমরা মনে করছি পকৃত অপরাধীদের বাঁচাতে কি ? হাবিপ্রবির ভিসি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের বহিষ্কার করেছে। আমরা এর সুষ্ঠু তদন্তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মহামান্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং শিক্ষা মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
Dinajpur-06-11-14-
হাবিপ্রবির ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে মিথ্যা অভিযোগে ছাত্র নেতাকে বহিষ্কার আদেশ প্রত্যাহার এবং ভিসির পদত্যাগের দাবীতে ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখা ৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার সভাপতি ইফতেখারুল ইসলাম রিয়েল এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক অরুণ কান্তি রায় সিটন এর সঞ্চালনায় মানববন্ধন কর্মসূচী শেষে বিক্ষোভ সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার সহ-সভাপতি মোঃ মোস্তাফিজ রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান জেমি, প্রত্যুষ রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম সুজন, কিশোর কুমার রায়, প্রচার সম্পাদক আতিকুর রহমান, দপ্তর সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, গ্রস্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক আহসান হাবীব রিজভীসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য