6_ISIS_sunni_killing_Iraqআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাকের পশ্চিমাঞ্চলীয় আনবার প্রদেশে এক গোষ্ঠীর ৩২২ জন সুন্নিকে হত্যা করেছে ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গিরা। রোববার ইরাকি সরকারের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বিবিসি। ইরাকের মানবাধিকার মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, একটি পানির কুয়ায় গণহত্যার শিকার আল-বু নিমর নৃগোষ্ঠীর ৫০ জনের লাশ পাওয়া গেছে। গোষ্ঠীটির আরো ৬৫ জনকে অপহরণ করা হয়েছে। রোববার সকালে প্রাদেশিক রাজধানী রামাদির উত্তরের রাস আল মা গ্রামে নিমর গোষ্ঠীর সদস্যদের ওপর হামলা চালায় আইএস জঙ্গিরা। হামলার শুরুতেই গুলি করে গোষ্ঠীটির অন্ততপক্ষে ৫০ জনকে হত্যা করে তারা। মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে, অপহৃত ৬৫ জনকে যুদ্ধবন্দি হিসেবে আটক রেখেছে আইএস। সুন্নি জিহাদি এই জঙ্গিগোষ্ঠীটি নিমর গোষ্ঠীর গবাদিপশুও লুট করেছে। নিমর গোষ্ঠীর জ্যেষ্ঠ নেতা শেখ নাঈম আল গাউদ বিবিসিকে বলেছেন, “সরকার আমাদের ছেড়ে গিয়ে আইএস-এর মুখে তুলে দিয়েছে।” “সরকারের কাছে অনেকবার অস্ত্র চেয়েছি। কিন্তু তারা আমাদের শুধু প্রতিশ্রুতিই দিয়েছে, ” বলেন তিনি।

বিবিসি’র বাগদাদ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, এই গোষ্ঠীটি প্রায় প্রতিদিনই আইএস’র হত্যাযজ্ঞের শিকার হচ্ছে। আনবার প্রদেশের আল-বু নিমর গোষ্ঠী সুন্নি হলেও আইএস’র বিরুদ্ধে লড়াইয়ের প্রথম থেকেই ইরাকি সরকারি বাহিনীর সঙ্গে যোগ দিয়েছিল। আনবার প্রদেশের অধিকাংশ এলাকাই এখন আইএস-এর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। নিমর গোষ্ঠীর নেতারা জানিয়েছেন, রোববার হত্যাযজ্ঞের শিকারদের মধ্যে ১০ নারী ও শিশু রয়েছেন। আইএস’কে প্রতিরোধ করার চেষ্টার শাস্তি হিসেবে তাদের লাইন ধরে দাঁড় করিয়ে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা করা হয়। গত সপ্তাহে একটি গণকবর থেকে নিমর গোষ্ঠীর বহু মানুষের লাশ উদ্ধার করা হয়। শনিবার আরো ৫০ জনকে হত্যা করা হয়েছিল। গত মাসে রাস আল মা’র নিকটবর্তী শহর হিট আইএস জঙ্গিরা দখল করে নিলে এসব লোকজন সেখান থেকে পালিয়ে এসেছিল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য