হারিকেনআজ সকাল থেকে সারাদেশ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন রয়েছে, যার প্রভাব পড়েছে আমাদের দিনাজপুর জেলাতেও। বাসা বাড়ী এবং অফিসের আইপিএস গুলো সারাদিনের বিদ্যুৎ চাহিদা পূরন করে বিকেল নাগাদ অচল হয়ে গেছে। নভেম্বর মাস অনেক স্কুলের ফাইনাল পরিক্ষার প্রস্তুতি চলছে আবার কথাও কথাও শুরু হয়ে গেছে। শহরে আজ বিকেল থেকে বিপুল পরিমানে মোমবাতি বিক্রী হয়েছে। অনেকে মোমের পরিবর্তে কেরসিনের পুরনো হারিকেন গুলো জ্বালাবার ব্যবস্থা করেছেন। কিছু কিছু জায়গায় হেচাগ বাতি দেখা গেছে। শহরে আজ বেড়ে গেছে নতুন হারিকেনের মূল্য, হঠাৎ করে কেরসিনের মূল্য বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতারা বিপাকে পড়েছেন। হঠৎ করে ব্যপক চাহিদা দেখাদেয়ায় কিছু অসাধু ব্যবসায়ি এই সুযোগটি নিয়েছে। জেলার বিভিন্ন এলাকার পাইকাড়ি তেলের দোকান গুলোতেও উচ্চমূল্যে কেরসিন বিক্রী করতে দেখা গেছে। বিদ্যুতের এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে আগামি কাল হয়তো ১০০ টাকা লিটির প্রতি কেরসিন কিনতে হতে পারে। এই রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত পিডিবি দিনাজপুর অফিস বিদ্যুৎ সরবরাহের সঠিক সময় নিশ্চিত করতে পারেন নি। জেলার সাধারন মানুষ কেরসিনের উচ্চমূল্য নিয়ন্ত্রনে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য