5_South-Korea-North-Koreaআন্তর্জাতিক ডেস্ক: উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যে এ সপ্তাহের শেষের দিকে পরিকল্পিত উচ্চ পর্যায়ের যে আলোচনা শুরু হওয়ার কথা ছিল সোমবার পিয়ংইয়ং এতে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করতে অস্বীকৃতি জানানোয় তা অনিশ্চতার মুখে পড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দুই কোরিয়া এ মাসের গোড়ার দিকে তাদের মধ্যে আবারো সংলাপ শুরু করতে সম্মত হয় এবং দক্ষিণ কোরিয়া আগামী ৩০ অক্টোবর বৈঠকের প্রস্তাব দেয়।এদিকে উত্তর কোরিয়া রোববার তাদের সর্বশেষ বার্তায় জানায়, এক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়ার আন্তরিকতার অভাব প্রতীয়মান হওয়ায় পিয়ংইয়ং এ আলোচনায় অংশ নেয়ার বিষয়টি গুরুত্বের সাথে পুনর্বিবেচনা করছে। উত্তর কোরিয়ার শক্তিশালী জাতীয় প্রতিরক্ষা কমিশনের ফ্যাক্স বার্তায় সীমান্তে সক্রিয় কর্মীদের উত্তর কোরিয়া বিরোধী প্রচারপত্রসহ বেলুন উড়ানো বন্ধ করতে দক্ষিণ কোরিয়ার অস্বীকৃতি জানানোর কথা বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়। এতে আরো বলা হয়, ‘দক্ষিণ কোরিয়ার এধরণের মনোভাবের কারণে আমরা উচ্চ পর্যায়ের ওই আলোচনায় অংশ নেয়ার বিষয়টি আবারো ভেবে দেখছি।’ দক্ষিণ কোরিয়ার একত্রীকরণ মন্ত্রণালয় জানায়, সিউল সোমবার জানিয়েছে তারা এ সংলাপ পুনরায় শুরু করার প্রতিশ্রুতি বজায় রাখবে এবং তারা এ বিষয়ে আলোচনায় বসতে কোন শর্ত জুড়ে না দিতে উত্তর কোরিয়ার প্রতি আহবান জানিয়েছে। মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিম বিয়ং-চিওল এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘আগামী ৩০ অক্টোবর আলোচনার জন্য আমাদের প্রস্তাবের ব্যাপারে উত্তর কোরিয়ার অবস্থান স্পষ্ট করতে তাদের প্রতি আমরা আহবান জানাচ্ছি।’ উল্লেখ্য, উত্তর কোরিয়া সক্রিয় কর্মীদের লিফলেট বিতরণের কঠোর নিন্দা জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য