মোঃ আনোয়ার হোসেন আকাশ : ঠাকুরগাওয়ের হরিপুর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ সৈয়দুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মাজেদুর রহমান সাজু ও সহকারি শিক্ষক মোঃ সফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতা, বিধিলঙ্ঘন ও বিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ পাওয়া যায়।

জানা যায়, স্কুলের প্রধান শিক্ষক চাকুরি শেষে অবসর গ্রহণ করার পর মাজেদুর রহমান সাজুকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ত্ব দেয়া হয়। ৩১ আগষ্ট স্কুলের কাজে ঠাকুরগাও যাওয়ার সময় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সরকারি প্রজ্ঞাপনকে অমান্য করে জৈষ্ঠতম ৩ জন শিক্ষক উপস্থিত থাকা সত্ত্বেও জুনিয়র শিক্ষক মোছাঃ হাফিজা খাতুনকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব দেন। স্বার্থ হাসিলের অসৎ পথ অবলম্বন করে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি, সহকারি শিক্ষক সফিকুল ইসলাম যোগ সাজসে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন, বিধি বিধান তোয়াক্কা না করে নিয়োগ বানিজ্য ও অনিয়ম, দূর্ণীতি করে বেপরোয়াভাবে।

বিধি লঙ্ঘন করে মাজেদুর রহমান সাজুকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক’র দায়িত্ত দেয়ার অভিযোগে একাধিক মামলা চলমান। বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগের প্রেক্ষিতে দিনাজপুর বোর্ড চেয়ারম্যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবু মুশা জঙ্গি ও জেলা শিক্ষা অফিস থেকে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ সুজা মিয়াকে তদন্তভার দেয়া হলেও দির্ঘ সময় ধরে অজ্ঞাত কারণে তদন্ত করা হচ্ছেনা।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মাজেদুর রহমান সাজু বলেন, ম্যানেজিং কমিটি আমাকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ত্ব দিয়েছেন। আমার যাকে খুশি তাকে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ত্ব দেব তাতে কারো কি !  উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ সুজা মিয়ার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য