রংপুরের কাউনিয়ায় ব্র্যাক কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় মঙ্গা তাড়ানো বিনা-৭ জাতের ধান চাষ করে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন। জনসংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে বাড়ছে খাদ্য সংকট। এই সংকট নিরশনে কিভাবে একই জমিতে অধিক এবং একাধিক ফসল উৎপাদন করা যায় সে জন্য প্রতিনিয়ত গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছে একদল গবেষক। তেমনি এক উদ্ভাবন বিনা -৭ জাতের ধান যা কিনা ব্র্যাক কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার কৃষকদের জমিতে চাষ করা হয়। এবছর উপজেলার কৃষকরা স্বর্ণা, বিআর ৫১ সহ বিভিন্ন জাতের ধান চাষ করেছেন। অন্য জাতের ধানের তুলনায় বিনা-৭ ধান প্রায় একমাস আগেই কর্তন করে কৃষকরা এতে ফলনো হয়েছে বেশ ভাল। গতকাল সোমবার উপজেলার ইউনিয়নের বনগ্রাম এলাকায় বিনা -৭ জাতের ধান কর্তন দিবস উদযাপন হয়েছে। বনগ্রাম ব্লকের বিনা -৭ জাতের ধান কর্তনের উদ্বোধন করেন জেলা কৃষি সম্প্রসার অধিদপ্তরের উপ পরিচালক জুলফিকার হায়দার। শস্য কর্তন মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুর রহমান, ব্র্যাক কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির রংপুর সিনিয়র কৃষি তথ্যবিদ জহিরুল ইসলাম, কৃষিতথ্য বিদ ওমর ফারুখ, ব্র্যাক ইন্টারন্যাশনাল মাসুদূর রহমান, উপজেলা ম্যানেজার রুহুল আমীন, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা কানাই চন্দ্র বর্মন, সুবল চন্দ্র, ব্র্যাক কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির হিসাব কর্মকর্তা ফখরুল ইসলাম, টিএ(এএফএসপি) লোভা, পিও (এএফএসপি) ফজলুল হক প্রমুখ। কৃষকরা জানান, ব্র্যাক কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় বিনা ৭ জাতের ধান চাষ করে তাদের এবং কৃষি অফিসের পরামর্শে পার্চিং, আলোক ফাদ ব্যবহার করে অল্প খরচে একরে ৬৫মণ করে ধান উৎপাদন হয়েছে। যা অন্য ধানের চেয়ে প্রায় বিশ মণ বেশি, অল্প সময়ে অধিক ফলন হওয়ায় তারা বেশ খুশি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য